আকাশে ব্যথার মেঘ জমেছে ,
বাতাসে পাখির আর্তনাদ ভেসে আসছে ,
কে যেন বাচাও বাচাও বলে চিৎকার করছে ।
কে যেন নদীর মাঝখানটাতে ভাটিয়ালী সূরে বলে ,
সুখ তুই আর কত দূর ,
সময় তো চলে এসেছে বহুদুর ।


বিয়োগান্ত জীবনে অগণিত বিয়োগ ব্যথা বুকে নিয়ে ,
আজো পাখিটা খুঁজে ফেরে তার হারানো দিনের সূর ,
কান্না ভেজা কণ্ঠে বলে - সময় তো চলে এসেছে বহুদুর ।


কাননে কিছু ফুল ছিল ,
কে যেন ছিরে দিলো পাতা ভেঙ্গে দিলো ডাল ।
আমি গগন পানে তাকাইয়া কহিলুম হে প্রভু -
তুমি তাকে বোধ দাও , বুঝতে দাও আর জ্ঞানী কর চিরকাল ।


আমি যে কেঁদেছিলুম ,
নয়নে যে অশ্রু ছিল ।
মা এসে বল্ল ওরে পাগল শান্ত 'হ' ,
দেখ আকাশ যে তোর দুঃখ বুঝেছে ।


আমি আবারো তাকাইলুম আকাশ পানে ,
দেখলুম সাদা মেঘে আধা দুপুর ।
হঠাৎ এক বিখেরী এসে বল্ল -
দু আনা দেবে সাহেব সারাদিন কিছু খাইনি ,
আমি আবারো কেঁদে ফেল্লুম ,  আর তাহারে কিছু অন্ন দিলুম ,  
আমি পুছিলুম তাহারে - সময় আর কত দূর ?


বিখেরীর চোখের কান্নায় বলে -
বিদায়ের ঘণ্টা বাজিয়াছে বুঝি
এই গ্রহে থাকিবার নাহি পারিলাম বেশিদিন ।
সারাটা জীবন কাটাইয়াছি হেলায় খেলায় ।
বুঝি নাই কভু ভাবি নাই ,
শেষ সময় খুব বেশিই গতিহীন ।
আমি নির্বাক ,