অনন্ত নক্ষত্র আর নীলিমার নীল ছিলে তুমি,
প্রিয়তমা, যে চোখে দেখেছি তোমায়;
সেই চোখে আজ বেদনার অশ্রুবিন্দু,
সজল নয়নে তোমারই জন্য বিরহ কাতর।


সদ্য ফোটা পদ্ম আর তুলিতে আঁকা ছবি ছিলে তুমি,
প্রিয়তমা, যে হাতে দিলে তোমার লেখনী;
সেই হাতে আজ জ্বলন্ত নেশার আগুন,
দাউ দাউ করে জ্বলছে মুক্ত সমীরণে।


কালো দুটি চোখ আর মিষ্টি অধর ছিলো তোমার,
প্রিয়তমা, যে অধরে চুমু এঁকেছি তোমার;
সেই অধরে আজ নিষিদ্ধ নেশার ছোঁয়ায়,
বিচরণ করি অচেনা এক অন্ধ গলির সিঁড়িতে।


লজ্জা রাঙ্গা আর পূর্ণিমা শশী ছিলে তুমি,
প্রিয়তমা, যে চাঁদ সাক্ষী ছিলো প্রণয়ের;
সেই চাঁদ আজ ফাঁকি দিয়ে চলে গেছে,
একরাশ বিক্ষিপ্ত কালো মেঘের আড়ালে।
            ---- ০ ----


কাব্যগ্রন্থ: প্রহর কাটে নীলকণ্ঠের ভালোবাসায়
প্রকাশকাল: একুশে গ্রন্থমেলা, ফেব্রুয়ারি ২০১৩
প্রকাশক: মাজেদুল হাসান, জয়তী পাবলিকেশন