কাউকে খুঁজছি-
সেই জন্মাবধি আজো যাকে লালন করি,
রংধনুর সাতটি রঙে,
হৃদয়ের পর্ণকুটিরে।
যারা ডাকে তারা চলে যায়,
নষ্ট কষ্ট বুকে নিয়ে,
আমি থাকি একাকী বসে,
নতুন দিনের রাঙ্গা আলোর প্রতীক্ষায়।


হ্যাঁ কাউকে তো খুঁজছি-
কল্পনার দুয়ারে আজো যে পেখম মেলে,
শিশির ভেজা সবুজ ভোরে,
প্রকৃতির মুগ্ধ করা অনাবিল সৌন্দর্যে।
যারা আসে তারা ভুলে যায়,
অন্ধকারের সিঁড়ি বেয়ে সুখের দুয়ারে,
আমি চলি রক্ত ঝরা দুটি পায়ে,
দূর আকাশের ঐ প্রান্ত ছুঁতে।


কাউকে তো প্রতিনিয়তই খুঁজছি-
স্বপ্ন বাসরে আজো যে লুকোচুরি খেলে,
রক্তিম ফুলের সমারোহে,
মনের গহিন অরণ্যে।
তারা আসে তারা চলে যায়,
স্বপ্নগুলো স্বপ্ন হয়েই থেকে যায়,
মিলিয়ে যায় শূন্যের আঁধারে,
আমি আজো দিবস রজনী খুঁজি তারে,
সে যে চিরচেনা তবু অচেনা,
হৃদয়ে লালিত অপরূপা সেই 'স্বপ্নচারিণী'।
           ---- ০ ----


কাব্যগ্রন্থ: প্রহর কাটে নীলকণ্ঠের ভালোবাসায়
প্রকাশকাল: একুশে গ্রন্থমেলা, ফেব্রুয়ারি ২০১৩
প্রকাশক: মাজেদুল হাসান, জয়তী পাবলিকেশন