পল্লী মা এত আপন
মানোনা তবু কোনো বারণ,
তোমার তরে দিতে পারি প্রাণ
ভালোমন্দ! নাই কারণ।


নিত্য তোমার বুক চিরে
যে ফসল তুলি ঘরে -  
বলনা তাতে দুঃখ করে
কষ্ট আর দিসনা ওরে-
চাও জারিসারি জোরে।


তোমার সৌরভ গৌরবে
কখন যে সকাল সন্ধ্যে গড়ে
ক্লান্তি তবু ছোয়না পথে
মধুময় আরো উচ্ছাস ভরে।


মা তোমার খালি কোলে শুয়ে
ধূলোমাখা সবুজ ঘাসের বুকে
যে প্রশান্তি পাই ঘুমে
তা আর পাইনা অন্য কিছুতে।


মা আমায় ডাকো যখন
সব ফেলে ছুটে আসি তখন
তুমি যে অতি আপনের আপন
মিশে আছ দেহে সারাক্ষণ।