পক্ষের উসকানি বিপক্ষের হাতিয়ার
মতামত করছে তবু নিজস্ব সংস্কার
পাতে দু ফোঁটা ঘিয়ের চেয়ে ভাত জরুরী
তাই দল বেঁধে ওরা খুঁজছে মজুরী।


ভয় ক্রীড়নকে জীবনের চলাচল
মেনে নিয়েছে শিখণ্ডীর অনন্ত হলাহল
মুখ ফিরিয়ে সহ্যের অসম দশায়
যুগ যুগ জেগে আছে বেঁচে থাকা শয্যায়।


দোহাই তার ব্যঞ্জনা নয় কোন মতেই
মাটি ছুঁয়ে শপথ তাই সেই পথেই
পক্ষের গুণগান বলে, আচ্ছা দেখে নেব
বিপক্ষের সেই সুর, আমরাও দেখিয়ে দেব।


আলোর খোঁজে এত অন্ধকার হানা
মানুষ আমি হাত বাড়াই, করো না মানা।