সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ

কবর

এই খানে তোর দাদির কবর ডালিম-গাছের তলে,
তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছি দুই নয়নের জলে।
এতটুকু তারে ঘরে এনেছিনু সোনার মতন মুখ,
পুতুলের বিয়ে ভেঙে গেল বলে কেঁদে ভাসাইত বুক।
এখানে ওখানে ঘুরিয়া ফিরিতে ভেবে হইতাম সারা,
সারা বাড়ি ভরি এত সোনা মোর ছড়াইয়া দিল কারা!
সোনালি ঊষার সোনামুখ তার আমার নয়নে ভরি
লাঙল লইয়া খেতে ছুটিলাম গাঁয়ের ও-পথ ধরি।
যাইবার কালে ফিরে ফিরে তারে দেখে লইতাম কত
এ কথা লইয়া ভাবি-সাব মোরে তামাশা করিত শত।
এমনি করিয়া জানি না কখন জীবনের সাথে মিশে
ছোট-খাট তার হাসি ব্যথা মাঝে হারা হয়ে গেনু দিশে।

বাপের বাড়িতে যাইবার কাল কহিত ধরিয়া পা
আমারে দেখিতে যাইও কিন্তু উজান-তলীর গাঁ।
শাপলার হাটে তরমুজ বেচি পয়সা করি দেড়ী,
পুঁতির মালার একছড়া নিতে কখনও হত না দেরি।
দেড় পয়সার তামাক এবং মাজন লইয়া গাঁটে,
সন্ধাবেলায় ছুটে যাইতাম শ্বশুরবাড়ির বাটে!
হেস না­ হেস না­ শোন দাদু, সেই তামাক মাজন পেয়ে,
দাদি যে তোমার কত খুশি হত দেখিতিস যদি চেয়ে!
নথ নেড়ে নেড়ে কহিত হাসিয়া, এতদিন পরে এলে,
পথ পানে চেয়ে আমি যে হেথায় কেঁদে মরি আঁখিজলে।
আমারে ছাড়িয়া এত ব্যথা যার কেমন করিয়া হায়,
কবর দেশেতে ঘুমায়ে রয়েছে নিঝঝুম নিরালায়!
হাত জোড় করে দোয়া মাঙ দাদু, আয় খোদা! দয়াময়,
আমার দাদীর তরেতে যেন গো ভেস্ত নসিব হয়।

তারপর এই শূন্য জীবনে যত কাটিয়াছি পাড়ি
যেখানে যাহারে জড়ায়ে ধরেছি সেই চলে গেছে ছাড়ি।
শত কাফনের, শত কবরের অঙ্ক হৃদয়ে আঁকি,
গণিয়া গণিয়া ভুল করে গণি সারা দিনরাত জাগি।
এই মোর হাতে কোদাল ধরিয়া কঠিন মাটির তলে,
গাড়িয়া দিয়াছি কত সোনামুখ নাওয়ায়ে চোখের জলে।
মাটিরে আমি যে বড় ভালবাসি, মাটিতে মিশায়ে বুক,
আয়-আয় দাদু, গলাগলি ধরি কেঁদে যদি হয় সুখ।

এইখানে তোর বাপজি ঘুমায়, এইখানে তোর মা,
কাঁদছিস তুই? কী করিব দাদু! পরাণ যে মানে না।
সেই ফালগুনে বাপ তোর এসে কহিল আমারে ডাকি,
বা-জান, আমার শরীর আজিকে কী যে করে থাকি থাকি।
ঘরের মেঝেতে সপটি বিছায়ে কহিলাম বাছা শোও,
সেই শোওয়া তার শেষ শোওয়া হবে তাহা কী জানিত কেউ?
গোরের কাফনে সাজায়ে তাহারে চলিলাম যবে বয়ে,
তুমি যে কহিলা বা-জানরে মোর কোথা যাও দাদু লয়ে?
তোমার কথার উত্তর দিতে কথা থেমে গেল মুখে,
সারা দুনিয়ার যত ভাষা আছে কেঁদে ফিরে গেল দুখে!

তোমার বাপের লাঙল-জোয়াল দুহাতে জঢ়ায়ে ধরি,
তোমার মায়ে যে কতই কাঁদিতে সারা দিনমান ভরি।
গাছের পাতার সেই বেদনায় বুনো পথে যেতো ঝরে,
ফালগুনী হাওয়া কাঁদিয়া উঠিত শুনো-মাঠখানি ভরে।
পথ দিয়া যেতে গেঁয়ো পথিকেরা মুছিয়া যাইত চোখ,
চরণে তাদের কাঁদিয়া উঠিত গাছের পাতার শোক।
আথালে দুইটি জোয়ান বলদ সারা মাঠ পানে চাহি,
হাম্বা রবেতে বুক ফাটাইত নয়নের জলে নাহি।
গলাটি তাদের জড়ায়ে ধরিয়া কাঁদিত তোমার মা,
চোখের জলের গহীন সায়রে ডুবায়ে সকল গাঁ।

ঊদাসিনী সেই পল্লী-বালার নয়নের জল বুঝি,
কবর দেশের আন্ধারে ঘরে পথ পেয়েছিল খুজি।
তাই জীবনের প্রথম বেলায় ডাকিয়া আনিল সাঁঝ,
হায় অভাগিনী আপনি পরিল মরণ-বিষের তাজ।
মরিবার কালে তোরে কাছে ডেকে কহিল, বাছারে যাই,
বড় ব্যথা র’ল, দুনিয়াতে তোর মা বলিতে কেহ নাই;
দুলাল আমার, যাদুরে আমার, লক্ষী আমার ওরে,
কত ব্যথা মোর আমি জানি বাছা ছাড়িয়া যাইতে তোরে।
ফোঁটায় ফোঁটায় দুইটি গন্ড ভিজায়ে নয়ন­জলে,
কী জানি আশিস করে গেল তোরে মরণ­ব্যথার ছলে।

ক্ষণপরে মোরে ডাকিয়া কহিল­ আমার কবর গায়
স্বামীর মাথার মাথালখানিরে ঝুলাইয়া দিও বায়।
সেই যে মাথাল পচিয়া গলিয়া মিশেছে মাটির সনে,
পরাণের ব্যথা মরে নাকো সে যে কেঁদে ওঠে ক্ষণে ক্ষণে।
জোড়মানিকেরা ঘুমায়ে রয়েছে এইখানে তরু­ছায়,
গাছের শাখারা স্নেহের মায়ায় লুটায়ে পড়েছে গায়।
জোনকি­মেয়েরা সারারাত জাগি জ্বালাইয়া দেয় আলো,
ঝিঁঝিরা বাজায় ঘুমের নূপুর কত যেন বেসে ভালো।
হাত জোড় করে দোয়া মাঙ দাদু, রহমান খোদা! আয়;
ভেস্ত নসিব করিও আজিকে আমার বাপ ও মায়!

এখানে তোর বুজির কবর, পরীর মতন মেয়ে,
বিয়ে দিয়েছিনু কাজিদের বাড়ি বনিয়াদি ঘর পেয়ে।
এত আদরের বুজিরে তাহারা ভালবাসিত না মোটে,
হাতেতে যদিও না মারিত তারে শত যে মারিত ঠোঁটে।
খবরের পর খবর পাঠাত, দাদু যেন কাল এসে
দুদিনের তরে নিয়ে যায় মোরে বাপের বাড়ির দেশে।
শ্বশুর তাহার কশাই চামার, চাহে কি ছাড়িয়া দিতে
অনেক কহিয়া সেবার তাহারে আনিলাম এক শীতে।
সেই সোনামুখ মলিন হয়েছে ফোটে না সেথায় হাসি,
কালো দুটি চোখে রহিয়া রহিয়া অশ্রু উঠিছে ভাসি।
বাপের মায়ের কবরে বসিয়া কাঁদিয়া কাটাত দিন,
কে জানিত হায়, তাহারও পরাণে বাজিবে মরণ­বীণ!
কী জানি পচানো জ্বরেতে ধরিল আর উঠিল না ফিরে,
এইখানে তারে কবর দিয়েছি দেখে যাও দাদু! ধীরে।

ব্যথাতুরা সেই হতভাগিনীরে বাসে নাই কেহ ভালো,
কবরে তাহার জড়ায়ে রয়েছে বুনো ঘাসগুলি কালো।
বনের ঘুঘুরা উহু উহু করি কেঁদে মরে রাতদিন,
পাতায় পাতায় কেঁপে উঠে যেন তারি বেদনার বীণ।
হাত জোড় করে দোয়া মাঙ দাদু, আয় খোদা! দয়াময়।
আমার বু­জীর তরেতে যেন গো ভেস্ত নসিব হয়।

হেথায় ঘুমায় তোর ছোট ফুপু, সাত বছরের মেয়ে,
রামধনু বুঝি নেমে এসেছিল ভেস্তের দ্বার বেয়ে।
ছোট বয়সেই মায়েরে হারায়ে কী জানি ভাবিত সদা,
অতটুকু বুকে লুকাইয়াছিল কে জানিত কত ব্যথা!
ফুলের মতন মুখখানি তার দেখিতাম যবে চেয়ে,
তোমার দাদির ছবিখানি মোর হদয়ে উঠিত ছেয়ে।
বুকেতে তাহারে জড়ায়ে ধরিয়া কেঁদে হইতাম সারা,
রঙিন সাঁঝেরে ধুয়ে মুছে দিত মোদের চোখের ধারা।

একদিন গেনু গজনার হাটে তাহারে রাখিয়া ঘরে,
ফিরে এসে দেখি সোনার প্রতিমা লুটায় পথের পরে।
সেই সোনামুখ গোলগাল হাত সকলি তেমন আছে।
কী জানি সাপের দংশন পেয়ে মা আমার চলে গেছে।
আপন হস্তে সোনার প্রতিমা কবরে দিলাম গাড়ি,
দাদু! ধর­ধর­ বুক ফেটে যায়, আর বুঝি নাহি পারি।
এইখানে এই কবরের পাশে আরও কাছে আয় দাদু,
কথা কস নাকো, জাগিয়া উটিবে ঘুম­ভোলা মোর যাদু।
আস্তে আস্তে খুঁড়ে দেখ দেখি কঠিন মাটির তলে,
দীন দুনিয়ার ভেস্ত আমার ঘুমায় কিসের ছলে !

ওই দূর বনে সন্ধ্যা নামিয়ে ঘন আবিরের রাগে,
অমনি করিয়া লুটায়ে পড়িতে বড় সাধ আজ জাগে।
মজিদ হইতে আযান হাঁকিছে বড় সুকরুণ সুরে,
মোর জীবনের রোজকেয়ামত ভাবিতেছি কত দূরে।
জোড়হাত দাদু মোনাজাত কর, আয় খোদা! রহমান।
ভেস্ত নসিব করিও সকল মৃত্যু­ব্যথিত প্রাণ।

কবিতার বিষয়: জীবনমুখী কবিতা, বিরহের কবিতা
অভিযোগ করুন
লেখাটি ৩৩২৯৫ বার পঠিত হয়েছে।


মন্তব্য যোগ করুন

লেখাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে নিচের ফরমটি ব্যবহার করুন।

Use the following form to leave your comment on this post.

মন্তব্যসমূহ

লেখাটিতে এপর্যন্ত ১১৬টি মন্তব্য এসেছে।

  • গাজী মুহাম্মদ সালাহ উদ্দিন ১৪/১০/২০১৪
    অসাধারন!!!
  • asshajit barua ০২/১০/২০১৪
    a parallel biographical poem really praiseworthy very nice
  • Sakeel Ahmed ১৫/০৯/২০১৪
    It is a very very..........good poem.I like ot
  • Shibu Nath ০৯/০৯/২০১৪
    কবিতাটির কথা মনে পড়তেই গুগলে সার্চ দিয়ে পড়লাম।কবিতাটি আমার এতো ভালো লাগে যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না।
  • tawfique ৩১/০৮/২০১৪
    10 e pora ek stu... kotota abeg appluto hole e dhoner kobita likhte pare jashimuddin tar evidence. Brilliant poem..........
  • Md.Mehedi Hasan ২৮/০৮/২০১৪
    Kobor kobita is my best kobita.I like this kobita.Ai kobita amer full mokusto.
  • Efaz ২৭/০৮/২০১৪
    Khub vlo laglo chokhe pani chole ashlo
  • আহসান আসিফ ২৬/০৮/২০১৪
    সত্যিই এই কবর কবিতাটি পড়লে চোখের পানি আটকে রাখা যায় না
    দুঃখ আর কস্টের মধ্য দিয়েই কবি এই কবিতাটি শেস করেন।
    কবি জসিমউদ্দিনের এই কবিতাটি একটি অসাধারন কবিতা
  • নাজমুস সাদাত ১৫/০৮/২০১৪
    এটাই জগতের নিয়ম,নিঝুম নিরালায় মাটির কবরে থাকতে হবে সকলকে।কেউ আগে যাবে কেউ পরে।
  • সাহান সিন ছবির ১৪/০৮/২০১৪
    কবিতাটিতে করুন দৃশ্য ফুটে উঠেছে!
  • মাহাফুজুর রাহমান ১৩/০৮/২০১৪
    ৩ বছর পর কবিতাটি পড়লাম,খুব ভালো লাগলো।
  • রোকন ১২/০৮/২০১৪
    আজ প্রথম কবিতাটি পড়লাম৷কবিতায় এত আবেগ!!
  • Md.Mostafizur Rahman ১০/০৮/২০১৪
    kobor amar khub prio ekti kobita.ami jokhon e somoi pai tokhon e eta porar chesta kori.DOA kori allah jeno Jashim uddin ke behesto nashib Kore .
  • zohurulr ০৯/০৮/২০১৪
    কবর কবিতা টি পড়ে আমার কবরের কথা খুব মনে পড়ছে কবরে যে আমাদের যেতে হবে সেটা মেনে নেওয়া কঠিন কিন্তু বাস্তব যতবার পড়ি ততবার কবিতাটি ভালো লাগে । xxx
  • মহাম্মাদ ইস্রাফিল ভুইয়া ০৫/০৮/২০১৪
    It is really an amazing poem ever.Whenever i recite it my tear comes automatically.It is one of the best poem ever in bangla literature
  • Md. Rezaul Kabir ০৩/০৮/২০১৪
    Excellent, Outstanding
  • কল্যাণ চৌনী ১৯/০৭/২০১৪
    কবি যখন দশম শেনীতে পড়েন তখন এই কবিতাটি রচনা করেন। শুনেছিলাম পরে তাকেই এর প্রশ্নের মুখোমুখী হতে হয়ছিল প্রবেশিকা পরিক্ষার সময়। মানুষের বেদনার যে অপূর্ব চিত্র অঙ্কিত তা অনন্য ।
  • মাহমুদ শাকিল ১৮/০৭/২০১৪
    এই প্রতিভা কোথায় থাকে?
    বুক পকেটে/অর্জিত সাধনায়?
  • মুনমুন নাসরিন নিশি ১৪/০৭/২০১৪
    kobitati pore valo laglo....................first porlam,,,,,r prothom bar porei ami mugdho..........................
  • দুলাল কৃষ্ণ ঘোষ ১৩/০৭/২০১৪
    আমার পড়া কবিতার মধ্যে শ্রেষ্ঠ কবিতা।
  • জী এম ফারুক ১১/০৭/২০১৪
    আমার প্রিয় কবিতার গুলোর মধ্যে একটি হল এই কবিতা... যতবার পরি ততবারই ভালো লাগে। কিন্তুু সমস্যা হল শেষের দিকে গিয়ে চোখ ঝাপসা হয়ে আসে...জলে...
  • TOWHID KAHN ০৪/০৭/২০১৪
    I think this is the best kobita to read in my life
  • DULALNUR ০৩/০৭/২০১৪
    চোখে পানি এসে গেল!
  • সালমান আক্তার ২৫/০৬/২০১৪
    কবর কবিতা টি পড়ে আমার কবরের কথা খুব মনে পড়ছে কবরে যে আমাদের যেতে হবে সেটা মেনে নেওয়া কঠিন কিন্তু বাস্তব যতবার পড়ি ততবার কবিতাটি ভালো লাগে ।
  • শান্তনু ২৩/০৬/২০১৪
    হ্রিদয়ের অন্তঃস্থলের এ ভাব্নার প্রকাশ শুধু মাত্র কবির দ্বারাই সম্ভব।
  • Md. Mahabub Sorker Emon ২০/০৬/২০১৪
    When I read this poem my tear is drop from my eye.
  • মোঃ রফিকুল ইসলাম ১৬/০৬/২০১৪
    জীবনে মনে করিছিলাম এই কবিতা পড়ার সুযোগ হবেনা আপনাদের ধন্যবাদ।
  • Arman Hossen ১০/০৬/২০১৪
    very nice Kobor Poem
  • Mostafiz ০৭/০৬/২০১৪
    I have lost the game.....!!! Couldn't keep my promises to my better half even today. I promised not to cry while going through this poem.. But.......... believe me..... But tears have broken all my iron gates of eye lids.....

    Salute Jasim Uddin, the greatest among all greats.....
  • raju ০৭/০৬/২০১৪
    i like very much.its my favourit poem.
  • Shafiqul Islam ২২/০৫/২০১৪
    Koita Etoye Riday Sporsi J Pongti Goli Porer Sathe Jiboner Adhay Goli Vese Uthe Moner Porday.
  • md.yeakub hossen ১৮/০৫/২০১৪
    amar prioy kobita.
  • সুমন ১৪/০৫/২০১৪
    আমি ০৯ এ......।২০১৪ইং......।।এ কবিতা আমাদের বই এ নাই............কিন্তু কবিতা টি সিত্য ই অনেক সুন্দর............।
  • এম এম আমিন ০৭/০৫/২০১৪
    -প্রনাম গুরু-
    তুমি ভাবনার শুরু
    তুমি ছন্দের গুরু
    তুমি কাব্যর সিংহাসনে,
    স্বপ্নের ন্যায়
    দেবকূল মাঝে
    আজো বিরাজিত আনমনে !
  • আফজাল হোসেন ০৭/০৫/২০১৪
    ১৯৭৭ কবর পড়েছি আর আজ পড়লাম আমার ভীতরের অবস্থা আমি প্রকাশ করিতে পারিলাম না
  • UTTAM BHUNIA ০২/০৫/২০১৪
    Oh! what a real poem of life. I cannot control my tears.
  • Jesmin ২৯/০৪/২০১৪
    The reality of life. One of best poem of Jasim Uddin.
  • tasnim ayesha ০৩/০৪/২০১৪
    this is an indeed a very upsetting harrowing poem... ,could not control my tears while reading
  • মুন্না ২৬/০৩/২০১৪
    এটি আমার কিছু প্রিয় কবিতার একটি। যখনি পড়ি, চোখে পানি আসে।
  • বিকাশ কীর্ত্তনিয়া ০১/০৩/২০১৪
    অসম্ভব সুন্দর একটি কবিতা
  • সাহাদাত শাব্বির ০২/০২/২০১৪
    এপ্রিথীবির মায়া ত্যাগ করে স্ত্রি চলে গেছে বহু দিন আগে কিন্তু প্রবিন বয়সে স্ত্রীর প্রতি অসামান্য ভালবাসা দেখে প্রিথিবী অবাক বিস্ময়ে তাকিয়ে রয়।
  • md.mahfuzur rahman ratan ২০/০১/২০১৪
    Ami jotober poresi totober kedesi
  • avijit ১৯/০১/২০১৪
    valobasa=mrittu=kobor=valobasa
  • sopan hasan ০৭/০১/২০১৪
    kobitati asolei khub valo
  • Kalyan Das Sharma ০২/০১/২০১৪
    aei kobita ti pore er bhasa mukhe bole bojhano asambhob....chokher jol atkano jay na......polli kobi jossim uddin tini je e bhabe nijeke tule dhorechen....ja bole prokash korleo kom hoye jay....
  • mohosi islam ০১/০১/২০১৪
    This is my favorite poems
  • বিজয় ১৪/১২/২০১৩

    ami jibone kono din kobita abrity kore kadini.
    kintu college class a ekdin medam ase ai kobita
    abrity korte bollen. tokhon suru korlam prothome
    fun kore porlam . but seser dike ase R fun korte
    parlam na. Sotti sotti Kede felam. ai kobitati onek
    Trejedy ....... R tar portheke medam amake & amar
    songi der darun valobashten. obosho tar agee
    amader kaw kei dekte partona bcoz amra tar class
    ta kortam na........................
  • Engr. Zahid Khan ১২/১২/২০১৩
    Ai Kobita ami jotobar porachi protibar e amar hridoy choye gechay. Pribar e ami kadaychi jeno amar apon jhoner khota prototi sobday sobday grothito.
  • শাহাদাত ১১/১২/২০১৩
    কবর কবিতা আমার রিদয় বিকশিত করে
  • Anondo Salman ০৯/১২/২০১৩
    Kanna dhore rakhte parlam na
  • খালেকুর রহমান সুমন ০৪/১২/২০১৩
    আমার অনেক ভালো লাগছে কবিতা পড়ে।
  • এহসানউল্লা মল্লিক ১৯/১১/২০১৩
    এই ধরনের কবিতা পরে হয়তো অনেক মুসলিম ভাই-বোনেদের কবোরের কথা মনে হতে পারে। এটা ইসলামিক দৃষ্টি ভঙ্গি। আমার খুব ভাল লেগেছে কবিতাটি পরে। হে আল্লা " ভেস্ত নসিব করিও সকল মৃত্যু­ব্যথিত প্রাণ।"
  • লাবিব ০৩/১১/২০১৩
    খুব সুনদর
  • ইমরান হাসান ০১/১১/২০১৩
    google a atoden dore ai rokom akti bangla kobitar sit khujcelam ai siter maddome gane orjoner onno jogote duklham.
  • Uzzal ২৬/১০/২০১৩
    schoole ardhek kobita porei chokhe jol asto. Aj pura kobita pore kanna aschhilo. Kobi asambhab bhalo maner moner manus chhilen. ALLAH kobike Behesto nasib korun. Amin.
  • পূজন পাল ২৫/১০/২০১৩
    কবিতাটি আমার খুবই প্রিয়,আমি কবিতাটি অনেক বার পড়েছি ।
  • পারভীন ২০/১০/২০১৩
    আমার খুব ভাল লাগে এই কবিতা পড়তে ।
  • RAISUL ১৪/১০/২০১৩
    আমারে ছাড়িয়া এত ব্যথা যার কেমন করিয়া হায়,
    কবর দেশেতে ঘুমায়ে রয়েছে নিঝঝুম নিরালায়.....
    যতবার পরেছি, চোখের জলে ভেসেছি
    কিছু বলা হয়ে যাবে দায় নিঝঝুম নিরালায়.....
  • রূপম ১৭/০৯/২০১৩
    মোর জীবনের রোজকেয়ামত ভাবিতেছি কত দূরে।
    জোড়হাত দাদু মোনাজাত কর, আয় খোদা! রহমান।
    ভেস্ত নসিব করিও সকল মৃত্যু­ব্যথিত প্রাণ।
  • Engr.Hossain Md. Murshed ১৬/০৯/২০১৩
    Kobita ti pode jar choke jol aseni, ami mone kori tai ei kobita ti podatai bertho hoyeche.
  • মুকুল ১১/০৯/২০১৩
    আমার জীবনে যত কবিতা পড়েছি আর পড়ব সবার চেয়ে নিঃ সন্দেহে এই কবিতাটাই উত্তম।
  • মুহিব আহমেদ ১১/০৯/২০১৩
    যাইবার কালে ফিরে ফিরে তারে দেখে লইতাম কত
    এ কথা লইয়া ভাবি-সাব মোরে তামাশা করিত শত।

    ব্যাক্তিজীবনের প্রিয় একটি লাইন/কাজ।
  • gias uddin ০৫/০৯/২০১৩
    kabita ti asambav valo kabita ti pare ami anno ek jagate chal jai .tai bar bar parte etche kare.eti ekti jibondarmi kabita.
  • আবু মাসুদ রেজা সবুজ ০৩/০৯/২০১৩
    যতবার কবিতাটি পড়ি ততবারই আবেগ আপ্লুত হয়। কবিতাটি আমার অসম্ভব প্রিয়।
  • Noor ২৮/০৮/২০১৩
    amar jiboner sera kobita........
  • ণিত্যানন্দ সারকার ২২/০৮/২০১৩
    বিরহ তবুও মধুর.........
  • গালিব ২০/০৮/২০১৩
    আমার জিবনের পঠিত শব থেকে প্রিঅ কবিতা
  • মীযাণ ১৩/০৮/২০১৩
    আমার খুব পছন্দের কবিতা
  • মো জহির রায়হান। ৩১/০৭/২০১৩
    মন্তব্য কি করব যদি ো কবিতা একটা পরিনা তারপরে ো কবর কবিতা আমার একটি প্রিয় কবিতা। জসিম উদ্দিন খুব নিখুত ভাবে এই কবিতা লিখেছেন। অবশ্য বর্তমানে এমন লেখার কবি পাোয়া খুব কঠিন। যাই হোক আপনাকে ধন্যবাদ। আমি কুমিল্লা থেকে।
  • Shubhashish Das ২৮/০৭/২০১৩
    this is the poem that touches my heart from the very first line n makes me cry.
  • remo ২৭/০৭/২০১৩
    its my favorite
  • আইশা আক্তার ১৭/০৭/২০১৩
    কবিতা তা আমি জতবার পরি তত বার ভাল পরতায় ইস্সা করায় আঅবিতা তা আমার খুব প্রিয়।
  • Niay sarkar ১১/০৭/২০১৩
    kabita ti asambav valo kabita ti pare ami anno ek jagate chal jai .tai bar bar parte etche kare.eti ekti jibondarmi kabita.
  • Sukanta biswas ০৯/০৭/২০১৩
    Protita manuser riday ke vabnar jagate dubiye deor mato kobita.
  • আব্দুল্লাহ আল মামুন ০৮/০৭/২০১৩
    কবর কবিতা আমার সবচেয়ে প্রিয় কবিতা।
    যাদের জন্য এই পড়তে পেরেছি, সবাইকে ধন্যবাদ।
  • md rukonuzzaman rasel ০৬/০৭/২০১৩
    আমার প্রিয় কবাতা এটা
  • মো.আল আমিন হোসেন লিমন ২০/০৬/২০১৩
    ভাল কবিতা
    • আকবার ৩০/০৬/২০১৩
      খুবই অসাধারণ.....................................
      তুলনা হয়না...............
  • ইউনুস ০৮/০৬/২০১৩
    আমি তার আত্তআর মাগ্ফারাত কামনা করছি
  • শাকিলা জাহান ২৮/০৫/২০১৩
    আমার প্রিয় কবিতা
  • সাঈদ ২৭/০৫/২০১৩
    কবি রা কিভাবে আত শুন্দর কবিতা লেখে? জতই পরছি ততই মুগ্ধ হচ্ছি।
  • মাসুদ আলম(মুন্না) ২৩/০৫/২০১৩
    আ্মার চম্পা সোনার জন্য বেহস্ত কামনায়।
  • এস.কে শাহেদ ২০/০৫/২০১৩
    আমার সবচেয়ে প্রিয় কবিতা এমন কবিতা আর হয় না
  • shekhar ১৫/০৫/২০১৩
    speechless, mind blowing.....i wonder how moudud ahmed could turn into a characterless politician having such an honest poetic company
  • ll ০৯/০৫/২০১৩
    প্রিয় কবি !
    প্রিয় কবিতা !
  • Nirmalya Banerjee ০৫/০৫/২০১৩
    একটি লাইন বাদ গেছে - “আস্তে আস্তে খুঁড়ে দেখ দেখি কঠিন মাটির তলে, ” এর পরের লাইন হবে
    “দীন দুনিয়ার ভেস্ত আমার ঘুমায় কিসের ছলে !”
    আর, আমার কাছে যে বইটা আছে তাতে বিভিন্ন জায়গায় পাচ্ছি - ভেস্ত নাজেল হয় । আর এখানে আছে “বেস্ত নসিব হয়” । কোনটা ঠিক ?
  • মোঃ মাহাবুব সরকার ইমন ১৬/০৪/২০১৩
    আমি কবিতাটি পড়ে প্রায় কেঁদেই ফেলেছি। কি অসাধারণ এই কবিতা, পড়লে যেন বুকটা কেঁপে ওঠে। সত্যি খুবই অসাধারণ।
  • রহিত রায় ২৫/০৩/২০১৩
    অসাধারণ, অপূর্ব সুন্দর কবিতা।কবি তোমারে সেলাম, বারে বার সেলাম...।
  • আরিফ ২৪/০৩/২০১৩
    আমি পছ্ন্দ করি।
  • এস. বলহরি বর্মন ১৭/০৩/২০১৩
    Really this poem is a wonderful one. It has touched my heart.
  • sajib saha ১৫/০৩/২০১৩
    one of my fav poem.....
  • প্রবীর দাস ১৫/০৩/২০১৩
    অসম্ভ ভাল,
  • সোহাগ শাহ্ ১৪/০৩/২০১৩
    খুব সুন্দর,এক ক্থায় অসাধারণ//////////////////
  • মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ১০/০৩/২০১৩
    খুব ভালো লাগে যতবার এই কবিতাটি পড়ি।
  • মঈনু উদীন ২৭/০২/২০১৩
    খুবই ভাল
  • তানিয়া ওয়াহিদ ১৯/০২/২০১৩
    খুব সুন্দর,এক ক্থায় অসাধারণ
  • Masud ২২/০১/২০১৩
    When I read this poem, can't stop the cry. This is very touching the heart directly.
    • Solaiman Kabir,Bosundia, Jessore.27-01-2013 ২৭/০১/২০১৩
      kabor of jesimuddin is really a pathetic poem. It indicates the reality of life on earth. so,one should read this poem again and again.
  • মুন্না ১৬/১২/২০১২
    খউব ্সুন্দর কাবিতা ।সকলের পারা উছেত /
  • sohel ০৯/১২/২০১২
    those words of poem can be realize but expression is more than that.
  • শাহিন আলম ০৪/১২/২০১২
    এই কবিতাটি আমার খুব ভাল লাগে, এই কবিতাটি আমাকে অতীতের ক্থা মনে করে দেয়, যা আমার ভাল লাগে
  • DINANATH MONDAL ২৩/১১/২০১২
    very pathetic poem
  • রবিউল হোসেন মামুন ২২/১১/২০১২
    এই কবিতাটি আমার এত ভালো লাগে যে প্রায় সময় কবিতাটি আমি পড়তাম। আমার পুরো কবিতা মুখস্থ ছিল। দারুন কবিতা।
  • হাসান পুলক ২২/১১/২০১২
    কবর আমায় আমার অতীত আর সামনের দিনগুলোকে মনে করিয়ে দেয়
  • মহিম ২১/১১/২০১২
    কবিতার শেষ ৬ লাইন আমার বারবার পড়তে ইছ্ছে করে, এবং পড়িও, অসম্ভব প্রিয় ...।
  • হাবিবুর রহমান ১৩/১১/২০১২
    কবির লেখাই জিবনের ছ্ন্দ পাওয়া জায়। সত্তি অনেক সুন্দর !
  • তারপর এই শূন্য জীবনে যত কাটিয়াছি পাড়ি
    যেখানে যাহারে জড়ায়ে ধরেছি সেই চলে গেছে ছাড়ি।
  • মোঃ আসাদুজ্জামান সিদ্দিকী ১১/১১/২০১২
    অপূর্ব সুন্দর কবিতা। কবি জসিমউদ্দীনকে আল্লাহ যেন বেহেস্ত নসিব করেন।
  • কখন ভুলার নয়।
  • ফারুক ফয়সাল, পাটগ্রাম রেলগেট,লালমনিরহাট ১০/১১/২০১২
    কবিতাটি জীবনের সঙ্গে মিলে যায়।
  • সরকার ফজলুল হক ২৬/০৯/২০১২
    অমর কবিতা ।
    • নাদিম ২৬/০৪/২০১৩
      অসাধার.........।
      • আব্দুস সালাম ১৯/০৬/২০১৩
        তুলনা হয়না এমন............।
        • মোঃ জসিম উদ্দিন ০৫/০৯/২০১৩
          আমি যতগুলো ইন্টারভিউ দিয়েছি সব গুলোতে শুধু মাত্র মিতার জীবন বৃত্তান্ত এবং কবর কবিতাটি বলতে হয়েছে।