১১৪.
চাকা গতি ও প্রগতির প্রতীক। কিন্তু এখানে কবিতার শুরুতে চাকা নেমে গেল উৎরাই বেয়ে। অর্থাৎ অবনতির ইঙ্গিত। অর্থাৎ রাত গড়ালো না। বরং আরো গভীর হল। রাতের মতো দুপুর, অর্থাৎ রাতদুপুর। অবনতির চরমে।
পাগল হাওয়া সেই অবনতির দিকে নির্দেশ করে। কিষাণের পাশবালিশ কিসের রূপক ? কিষাণের স্ত্রী ? তার খাদ্য আলু-ভাতে আর ডাঁটা চচ্চড়ি ? তাই খেয়েই সে ঘুমিয়ে পড়ে ? দারিদ্র্য ?
বিজ্ঞান ছেড়ে কুসংস্কারের কদর। ডাইনীর অস্তিত্বে বিশ্বাস। মানবজাতির পশ্চাদগতি। কিছু আর সরল নেই। সব অস্বচ্ছ, কুয়াশাময়। তথ্যচিত্রে পাখিরাও ডানা ঝাপটিয়ে অস্বস্তি প্রকাশ করে।
মানুষ শান্তিতে নেই। ইতিহাসের চাকা বুঝি পেছনপানে চলেছে।
কবিকে আন্তরিক শুভেচ্ছা এমন সতর্কবার্তাধর্মী বিচিত্র ভাবনাময় কবিতা লেখার জন্য। চাকা গতির প্রতীক l শুধু প্রগতির নয়, অধোগতিরও। সভ্যতার আদিকাল থেকে চাকায় ভর করে মানবজাতি যেমন ক্রমান্বয়ে প্রগতির পথ বেয়ে সভ্যতার চরম শিখরে পৌঁছেছে, তেমনই, মানুষের অপকর্মে চাকা অবনতির প্রতীক হয়ে মানবজাতিকে অধঃপতনের পথেও নিয়ে যেতে পারে।