বর্ষা তুমি এলে, গর্জে তুমুল হর্ষে
স্বপ্ন তাই সত্যি হল, ফুটেছে কেয়া মন্দ্রিত উচ্ছ্বাসে।


নদীর পাড়ে ঝোপের ঝাড়ে
রোদের কঠিন অবহেলায়
দুঃখ দহন জ্বালা সয়ে
কেতকী স্বপ্ন-আশায় ছিল বিভোর,
আকাশ ভেঙ্গে তাই কি এলে
কলসী ভরে সাগর জলে
ভিজিয়ে দিতে তপ্ত হৃদয় অকাতর?


অন্ধকারে পথের চিহ্ন আঁধার ঢাকা,
বজ্ররেখায় তাই কি তুমি জ্বাললে শিখা?
কোমল ছায়ার ময়ূর পেখম
ছন্দে তোমার ভরল জীবন,
আঁধারঘন নিঝুমেতে
ঝরঝর জলপ্রপাতের কল্লোলেতে
সাগরের মনের কথা নিয়ে সাথে
এলে তুমি অবুঝের সবুজ বেদনাতে।


তুমি আষাঢ়ের প্রথম শোভা,
কেতকীর হৃদয়-হরণ মনলোভা,
শান্তছায়ার স্নিগ্ধ কায়া,
ধরনীর তপ্ত হাওয়ায়
ফোঁটায় ফোঁটায় মায়া ঢেলে
এলে তুমি উদাস চিতে,
ঊষাকালে ঝরে যাওয়া বাদল ঋতুর প্রথম স্রোতে।