কবিতায় মন্তব্য দেয়া দিয়ে সম্প্রতি খুব আলোচনা হচ্ছে। কিন্তু প্রশ্ন - কবিতায় মন্তব্য দেয়া নিয়ে এত আলোচনা কেন?


কবিতার আসর একটা স্বাধীন ও মুক্ত জায়গা। যার যেমন ইচ্ছা কবিতা পোস্ট করবে, কবিতা পড়বে, মন্তব্য দেবে। এখন কেউ যদি বোঝে অন্যেরা তার কবিতা না পড়ে মন্তব্য দিচ্ছে এবং এতে অপমানিত বোধ করেন, সে ক্ষেত্রেও তার স্বাধীনতা রয়েছে সে মন্তব্য মুছে ফেলার। কিন্তু কে কিভাবে মন্তব্য দেবে বা কে কিভাবে তা গ্রহন করবে এসব নিয়ে এত আলোচনার প্রয়োজন কি? যারা অনেক মন্তব্য দেয় (কবিতা পড়ুক না পড়ুক) তারা তা জেনেই দেয়, আবার কেউ যখন বেশী মন্তব্য পাবার জন্য অন্যদের কবিতায় বেশী বেশী মন্তব্য দেয়, তাও তারা জানে। আসরের নিয়ম মেনেই তারা তা করেন। এতে তাই এমন কিছু নেই যে এই সব মন্তব্যকারীদের নানা কথা শুনিয়ে দিতে হবে।  


লোকে মেলায় গিয়ে দরদাম করে - কেউ কি কাউকে বলে দেয় কিভাবে দরদাম করতে হবে বা করতে হবে না?


কবিতার এই আসরই ঠিক তেমনি একটা মেলা - কবিতার মেলা। আর পাঠকেরা হল এখানে ক্রেতা - যার যেমন খুশী পাঠকেরা কবিতা পড়বেন, যার যেমন খুশী মন্তব্য করবেন  - সম্পূর্ণ পড়ুক বা না পড়ুক, অর্থ বুঝুক বা না বুঝুক। দোকানদার অর্থাৎ কবির অপশন আছে - যদি মনে হয় কোন মন্তব্য পীড়িত-দায়ক তবে সে মন্তব্য মুছে ফেলার; অথবা মন্তব্য না চাইলে মন্তব্যের অপশন বন্ধ রাখার।


কিন্তু তাই বলে কে কিভাবে মন্তব্য করবে বা করবে না সে সম্পর্ক কেউ যদি নিজের মতামত পাঠকদের উপর চাপাতে চান বা তাদের কাছ থেকে নিজের প্রত্যাশামত মতামত আশা করেন তবে সে হবে পাঠকের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ। আসরের নিয়ম-নীতির মধ্যে থেকে যেমন খুশী কবিতা পড়ার, অর্ধ পড়ার, বা না পড়ার, কবিতা বোঝা বা না বোঝার, যতবার খুশী একটা কবিতায় ক্লিক করার, অথবা যেমন ইচ্ছা মন্তব্য দেয়ার স্বাধীনতা পাঠকের রয়েছে। পাঠকদের এই স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধা পাঠক হিসাবে আপনিও নিশ্চয় আশা করবেন।


ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা সবাইকে ...