গাঁয়ের ধারাটি  চলছে  বহ
         ঘুরছে অবিরত,
মাশাল প্রদীপ  রাতা রাতি
          প্রতি নিয়ত।।


টাকা পয়সা হই হুল্লা
  হাসা হাসির মুখ-
কে কখন ফিরে দেখে
     বেকার ছেলের  দুঃখ"
বহু  শ্রম কাটিয়ে  যেথা
ভরাট  হাত খালি,
মাথ খানি নিচু করে
  মুখ চুন  কালি,
সদ্য  মুখের বদ্ধ  খুজে
চোখে থাকিতে নাই,
  চাকরি সুত্র  বাঘে খেল
    বাঘের গন্ধ নাই।


শত শত ছুটাছুটি
বোম্ব বোম্ব বোম্ব  ঘুরে,
বেকারত্ব  অভিশাপ নিয়া
          থাকে কুটায়  পরে।
দক্ষ   যোগ্য  নিজের করে ,
সনদপত্র খানা  তুনে
দু চার খান সার্টিফিকেট তার
রইছে ঘরের কোনে।
বিদ্যা বুদ্ধি শিখছে
বেশ
      অর্থ  র যোগান   নাই,
ইহার জন্য বৃথা হল জনম চেষ্টা তাই।।


সপ্ন গুলো চোখের কোটায়,
পংক্তি   রাজ্যে  তরে,
পংক্তি টা সেই হারিয়ে গেল

অন্ধ  গায়ের তীরে ।
সকল ধারার বইছ
ধরন
              চলছে  অবিরত,
সেই ছেলেটি গায়ে র ছেলে
     বড় বেকারত্ব ।