অপরিচিত থেকে খুব পরিচিত মনে হয় আমি - কতো পথ চিনিয়ে দিই সংযোগীদের
বিপথগামীর মত থাকি, তব কতো জনের উদ্দেশ্যময়ী;
আমি সম্ভবত নিজ থেকে নিচু, অন্যের কাছে দরকারি ;
নিজেকে জানোয়ার মনে হয়, খাই - পড়ি - বড় হই, নিজের কিছুই হয়না ;
কখনো স্বাধীনতা দেখিনা, একটু মন খুলে চিৎকার করা ;
কখনো রাগ প্রকাশের একটা ভাষা দেখিনা, যেটা জীবিত মানুষের দরকার;
তাই অবশ্যম্ভবী মৃত মানুষ, ঘৃণার পাত্র নিজের চোখে, অন্যের কাছে দাস;
আমি উতরাতে পারিনা এই সংকট থেকে - চারিদিকে অন্ধকার সাজানো ;
বেরবার পথ নেই, নিজ স্বকীয়তা নেই, লাগামহীন দাসত্ব অনন্তকাল!


বেগতিক আমি কতোনা পরিচিত, বলে দিই - কখোন সময়, কতো তারিখ, বেলা কেমন?
লোকজনের কাছে আমি একটা আলোর ল্যাম্পপোস্ট - মাঝেমাঝে দরকার পড়ে!
আমি মানুষ শ্রেণীর ভিতর না, কখনোই না -
একটা মানুষের আছে নিজস্ব চাওয়া, নিজস্ব সম্মান, বলার অধিকার ;
মাঝেমাঝে মনে হয় এগুলো আমার কিছুই নেই - আমি কখনো কাঁদতে পারবোনা
বরঞ্চ হাসতে পারবো নির্লজ্জতায়, এই মানুষগুলোর মতো ;
শুনেছি, মানুষের অনেক কাছের মানুষ হয় -
দূরের মানুষ হয়, আপন মানুষ হয় - পর মানুষ হয়,
কিন্তু আমার ক্ষেত্রে - সব অন্য মানুষ : এরা কাছেরও না, দূরেরও না
আপনও না, পরও না - এরা শুধুই মানুষ, শুধুই....