আমাকে প্রশ্নের বাইরে রেখো, আমি উত্তর জানিনা?
শত মানুষ হিপোক্রিটের ছোঁয়ায় বেড়ে উঠেছে, কতো যন্ত্রণা সালিশহীন ;
দুটো মনের আবদার বলবোনা, বেপথে চলার গল্প জানিনা -
দুটি সময়ের আলাদা একক, আমি মানুষ থেকে আলাদা ;
আমি বুঝতে পারি, আমার ভীষণ হেডেকের যুক্তিযুক্ত কারণ -
ভীষণ অন্যায়ের প্রশ্রয় চারিধারে
যত মন্দ পরিচয় তত শুভাকাঙ্ক্ষী, আমি আলাদা জগতের অস্পর্শে ;
হিমালয় থাকে ঘণ, শীতল মৌন বাক অধ্যায় -
মানুষ কি চুপিচুপি কার্যসাধন করে, রাত বাড়ে নগ্ন ছোঁয়ায় ;
আজকাল খুব সহজলভ্য যৌনতায় - ছুঁয়ে দিলে সব অভিসার
এখানে অন্যায়, অপরাধ, মৃত্যু - জীবন বাড়ম্বনায় সংশয় ;
আমি এই অবরুদ্ধ শহরে, শত রাত মানিয়ে নিয়েছি শরীরে ;
লাশের গন্ধ চিবুকে স্পন্দন দেয়না - বরঞ্চ অবশ মনে হয়
নোনা মেয়ের স্পর্শে : হাজারো রাত দেখি পড়ে থাকে!
শিল্পী জীবন আজ মূর্খ মাতালের - অভিমানী বালক উষ্ণ পল্লীর প্রথম প্যাসেঞ্জার ;
কোনো রাত বালিকার প্রেম নয় গোলাপে আবদ্ধ -
সব বিলাস - আর্থিক অনার্থিক প্রয়োজন বিয়োজন ;


আমি উত্তরের বাইরেও অনেক কাল আছি, পাপ সয়ে সয়ে যেন ঈশ্বর হয়ে গেছি ;
মুঠোবন্দী ইচ্ছায় চারপাশের ঢেকে যাওয়া অপরাধে -
মানুষ থেকে কবে বিতাড়িত হয়েছি : এখন মানুষ বলতে দেখি
কোনো অপকালের প্রাণী - যারা বিবর্তিত - যারা সহিংস -
যারা অবাধ যৌনতায় লিপ্ত - অশৃঙ্খল তোষামোদে বিভোর - চরম মদ্যপায়ী ;