কোনো ক্ষতি নেই, এই সময় নিয়ে তলানো - আমি ঘুমোতেই পারিনা
তাই সব দৃষ্টি থেকে বৃষ্টি হয়ে ঝরে যায় - হিসাব হয়েও হিসাবে থাকেনা!
রাধা স্বাচ্ছন্দ্যে থাকে কৃষ্ণর সোহাগে, সারা রাত ভৈরবে কোনো সংকীর্ণ ভাবনা নয়;
হেলেন থাকে বিছানায়, ক্লিওপেট্রা, জুলিয়েট, সবাই স্বাচ্ছন্দ্যে
শহরের নিয়ন উষ্ণতা পায় অজস্র চুম্বনের : তারপর ভেজা ঘাম, কত কীর্তি রটে, কত মুছে যায়!
স্বপ্ন চূর্ণ নিরিহ বালকের জীবন প্রাপ্তি, উচ্ছৃঙ্খলরা মেতে যায় জীবনের উৎসবে;
এ জীবনে কতো কিছুই পায় কতো মানুষ - কিন্তু নিশ্চুপ শান্ত মনের মানুষগুলো সব হারায় ;
আমি নিজস্ব ঋণী, এই পৃথিবীতে ক্ষয়ে যাক ভুল জন্মের সব স্মৃতি ;
আমার মতো ওরা খুব সামান্য - জীবনে খুব কম নিয়ে থাকে
তবু জড়িয়ে যায় সব ভীতি ;
আফ্রোদিতি খোলামেলা হেসে হেসে গুনগুন গাচ্ছে গান -
এ্যাঞ্জেলিনা উপুড় হয়ে প্রশ্রয়ের সঙ্গীকে দিচ্ছে আহবান ;
মোনালিসা ভাবছে সারা রাতের জেগে থাকার সুখ-
বনলতা মুখোমুখি চেয়ে পুরনো সেই বোকা কবির মুখ ;
তারপর পৃথিবীতে রয়ে যায় অনেক দীর্ঘশ্বাস - চেয়ে দেখি তুমি ভালো নেই
তবু বলে যাও এক ঝলক হেসে, 'ভালো আছি'
কী জাগ্রত এই মিথ্যা চিরদিন বহমান - নান্দনিক পুঁজার দাসত্বে তবুও বিভোর!