ট্রেনটা ছুটল বলে সামনের স্টেশনের অপেক্ষায়
একি তুমি দেখছি এখনও ঠায় দাড়িয়ে ওঠে পড়ো
ট্রেনটা যে চলে যাবে সমান্তরাল রেখায়
পেছনে ফেলে ক্লান্তির প্রহর ।


আহা কি সুন্দর আধুনিক বিলাসবহুল দ্রুত গতির ট্রেন
এর আকর্ষনে প্রত্যেকেই ব্যস্ত ভ্রমন বিলাসে যেতে
ছি ছি হাতের মুঠোয় পেয়েও কোন সারা দিচ্ছ না, এটা কিন্তু ঠিক না ?
কোথায় তোমার অনীহা, কিসের এতো সংকোচন ?


চিন্তা করোনা সমান্তরাল রেখায় ভাল থাকবে দুলবে না শরীর  
বুঝতে পারছি ট্যাক্সি ক্যাবের উঁচু নিচু রাস্তার ঝাকুনি খুব মিস করবে,
আরে এটাতো করতেই হবে দূর দিগন্ত জয়ের আকাঙ্খায় ।
আধুনিক কিন্তু বিলাসবহুল নয়, চলন্ত কিন্তু দ্রুত গতির নয়,
এর মাঝে আস্তে আস্তে সময় হয়ে যাবে ক্ষয়
তাহলে কি করে করবে ঐ দূর গিগন্ত জয় ?


নরম তুলতুলে বালিশে মাথা রেখে পশমি কম্বলের আলতো ছোঁয়া
ভেবে দেখ কি সুখের জীবন ওখানে ।
আর জীবনের পরতে পরতে যুদ্ধ করে অনেক কষ্টে
জীবনের ভারসাম্য রক্ষা করতে হবে এখানে ।


নিশিত রজনী পাবে, ভরা পূর্ণিমার ঝলমলে আলো পাবে,
গ্রীষ্ম বর্ষা শরৎ পাবে, আরো পাবে বৃষ্টিমুখর অফুরন্ত ভালোবাসা ।
আর বলছিনা তোমায় দৌড়ে ট্রেনের হাতল ধরতে
ইচ্ছে হলে জড়িয়ে পরতে পার এই বুকে ।


২৪/০৯/২০১৩ ইং,