শব্দেরা আজ বুকের খাঁচায়
ধিতাং ধিতাং মাদল বাজায়!
মনটা নাচে মন-পাঁজরে
হেথা হোথা বেড়ায় উড়ে!
শূন্য মনে দেয় গো দোলা
খেয়ালখোলা পাগলাভোলা!
বর্ণচোরা বর্ণ যত
আসছে ধেয়ে শত শত!
নাচছে দাদু, নাচছে নাতি
নাচের তালে দুলছে ছাতি!
ব্যাংগুলো আজ কণ্ঠ ছেড়ে
গান ধরেছে রাত-দুপুরে!
ভীষণরকম গানের দাপট
কর্ণমূলে মারছে ঝাপট!
পেখম তুলে ময়ূর নাচে
সোনাঝুরির বনের মাঝে!
শান্তিপুরের ক্ষেন্তি পিসি
সুরে সুরে বাজিয়ে বাঁশি,
নাচছে কেমন দুই-পা তুলে
দুঃখ জ্বালা সবই ভুলে!
ছন্দে নাচে মনটা আমার
নেশায় মেতে উড়ান দেবার!
সুরের পালে লাগলো হাওয়া
স্বপন-তরী চলছে বাওয়া!
আবোল-তাবোল ভাবনাগুলো
আজকে প্রাণের ছোঁয়া পেলো!
ইচ্ছেরা আজ লাগামছাড়া
মেঘের পাড়ায় পড়লো সাড়া!
বৃষ্টিরাণী উঠলো হেসে
প্রিয়ার নূপুর ভালোবেসে!
ঝুমুর ঝুমুর নূপুরধ্বনি
কে গো তুমি? বৃষ্টিরাণী?
**************®***************