দিশেহারা দুনয়নে দেখেছি তাকে-
সে যে আকাশের রজনী।
বাতাসের কালনিধি।


তার পদচরনে কত যে দুর্গা বয়ে যায় - তা কেউ জানে!


দূর আকাশের পানে একটি সানাই বাজে যে সানাইয়ের সুর আমি কোনদিন শুনি নি!


এ হৃদয়ে একী গগন উদিত হয় যে গগনে শুধু একটি তারা দোলে।


জন্মের তরে আমি তারে পেয়েছিলাম কোন সে নবলোকে সে লোকের ধ্যান কেউ ভাঙতে পেরেছিল কিনা জানা নেই-
সেই ধ্যানে আমি একদিন থাকিয়া তার( ধ্যান) তরে
শিঙ্গা বিসর্জন দিয়া আমি যে দোআসমানে নাচিতেছিলাম।


ইহলোক, পরলোক সব স্বর্গে উঠিবে  যেদিন সে নাচিবে ওগো দোতারার  ঝিলে।