চলো না দুজনে ;
সমুদ্রের জলে আবার হয়ে যাই লীন।
চাঁদের তাঁতে বুনতে দেই,
ভালোবাসার চাঁদর।
যন্ত্রণার শিশিতে থাক না পড়ে
হেমলক বিষ।
আমরা কুড়াবো বেশাখী আম।
বর্ষার জলে ভিজে হবো
মুক্ত বলাকা।
চৈতালী রোদে পুড়ুক না হয়
বিলাসী কষ্ট।
কষ্ট !
সেতো ভালোবাসার হাঁড়ে জাগা
শীতের কাঁপন।
চলো না আবার ছুয়েঁ দেই
মেঘেদের শরীর।
গলা ছেড়ে গাই ;
পাহাড় ভাঙ্গার গান।
ঝিনুক ছাড়ুক তার
আপন খোলস্।
গুমরে কাঁদুক মৃন্ময় জগৎ।
আমরা চলি চাঁদিমার বুক চিড়ে।
মিহি সুতোয় আবার বাঁধি
শৈল্পিক স্বপ্ন।
চলো না ফের যাই ;
হৃদয়ের বানিজ্যে।
বেদনার পাঠ চুকিয়ে,
আবার শুরু করি
প্রণয়ের লেনদেন ।
-----------------