(গত ১১-১২-২০০২ইং তারিখে লেখা কিন্তু প্রতিক্ষায় থাকা বলে কথা)


বেদনার বর্ষা থেমে গেছে
আরও একত্রিশ বছর আগে।
এখনও তবু ;
কষ্টের কাদাজলে খাচ্ছি লুটোপুটি।
নাইবার মতো ;
এতটুকুন স্বচ্ছ জল নেই কোথাও।
বাতাস আবার হয়েছে বিষাক্ত।
সূর্য্য সন্তানদের
এখনো হয়নি গর্ভচ্ছেদ।
এখন পৃথ্বীজগতে হচ্ছে
ক্ষয়িষ্ণু মানবতার শবযাত্রা।
ধর্ম হচ্ছে ক্ষয় পাশ্চত্যের লোনাজলে
বিত্তের দামে বিক্রয় হয়
ক্ষমতার স্বর্ণমুকুট।
রক্তের স্বাধ নিতে
মানুষই ঝড়ায় জিহ্বার লালা।
শিশুর চিৎকারে চিৎকারে কাঁদে পৃথিবী
অথচ ;
নারীই তখন যৌন সংগমে থাকে মত্ত।
চোখ বুঝলেই দেখি
মৃত মানুষের মিছিল।
লাশের বুকে মাথা রেখে কাঁদে
আরেকটি জীবন্ত লাশ।
বুকের জমিনে মেঘ সাজিয়ে
এখন আর কাঁদেনা আকাশ
তবুও কষ্টেরা নেয়নি ছুটি।
তথাপিও বেঁচে আছি ;
আমরা গুটি কয়েক মৃত মানুষ।
রোজ রাতে স্বপ্ন জড়িয়ে
প্রতীক্ষায় থাকি ;
প্রয়োজনীয় রক্ত বিনিময়ে
ফের কবে পাবো
অনাবিল শান্তির নীড়।