কচিকচি অঙ্গ প্রত্যঙ্গের উজ্জ্বলতা মসৃণতা,                      ধুলোয় ধুলোয় যেন মলিন হয়ে গেছে।                    
তার কন্ঠস্বর কেমন যেন বিকৃত মনে হয়।                        
সেদিন আমি কাঁদতে পারিনি,যখন মাঝে মাঝে রাস্তা দিয়ে হাটতে থাকি তখন চোখে পড়ে দরিদ্রতর কিছু শিশুর শুকনোমুখ।                                                            
                                                                 গায়ের পোশাক ছেড়া,ধুলোয় জরাজীর্ণ।                       চুলগুলো পুষ্টিহীনতায় হলুদাভ রং ধারণ করেছে। দেহের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ প্রত্যঙ্গে নেই কোন মহীয়সীর আদর যত্নের প্রতিচ্ছবি।তারপরও,ওরা হাসে খেলে প্রাণভরে।                         ওদের মধ্যে নেই কোন কষ্টবোধ কারণ,                          সুখের ছোঁয়া ওরা কোন দিনও পায়নি।                            
                                                                  
                                                                    
ওরা কেউ "মা"শব্দের সাথে পরিচিতও নয়,                                                          
মা বলে ডাকার সুযোগ কখনো হয়নি তাদের।
কি আশ্চর্য কথা!আমি অবাক হই।