কবিরা সমাজের মুখপাত্র বলে চারিদিকে  
আছে তার কতনা গুঞ্জন ।
কবিতাতে সমাজের মানবতার প্রেমেরই
পাই যেন সেই অনুরণন ।
আমার জানার আজ প্রবল প্রত্যাশা সেই  
কবি মন হয় কেমন ?


আমি জানি কবি মন হয় সীমাহীন, ঠিক  
যেন উদার নীল গগন !
ভাবনারা ভেসে বেড়াবে সেথায় অবমুক্ত
সাদা মেঘের মতোন ।
পর্বত যেমন সৌন্দর্য বিলানোর সাথেও    
ঝরায় নির্ঝর প্রস্রবণ...............  


ধর্মবাণীর পর যে মনের আকুতি দিয়ে হয়    
পরম ভক্তির কাসিদা কীর্তন ।
সাম্য মৈত্রী অসাম্প্রদায়িকতার সম্প্রীতির
জন্য যে মন বড় প্রয়োজন ।  
শোষকের বিষদাঁত ভাঙতে যার মন দ্রোহে
করে কামানের গোলা বর্ষণ ।


কবি মন করে বুঝি আনচান সত্য চেতনে
জাতিকে করতে সচেতন ।  
জাতি বিজাতি নারী পুরুষকে করিতে চায়
ঐক্যেতানের সুত্রে বন্ধন ।  
কবি মন হয় বুঝি পুতঃপবিত্র লোভ হিংসা
বিদ্বেষ অহংকার পরিবর্জন............  


যত জটিলতা কুটিলতার কুচক্র ভেদে কবি
মন হয় সর্ব অন্তরে সুগ্রহণ ।  
রাজনীতির আশীর্বাদ পুষ্টতা চায় না কবি
চায় না পদ পদবী মাল্যবরণ ।  
জৈবিক কামনা বাসনার ঊর্দ্ধে উঠে সে বুঝি
তার মনকে করে অসাধ্য সাধন ।


আজও আমি হইনি কবি শুধু কবিকে করি
শ্রদ্ধাভরে অনুরাগে অনুসরণ ।
নবী আর আসবে না ভবে কবি যদি তবে
করিত কিঞ্চিৎ জীবন দর্শন ।
কবির মাঝে সকাল সাঁঝে আমি খুঁজে ফিরি
তাই, শুধু সেই সাদা মন ।
তা না হলে সে আবার কবি কেমন.........?        


কবিতার জগতে পদার্পণ আমার বেশী দিন হয়নি । কবিদের সংস্পর্শ পেলাম মাত্র ইদানীং। দূর থেকে আমি কবিদের নিয়ে যতটা প্রত্যাশা করেছিলাম, বলবো না তা আমি পাইনি । তবে  যেমনতা হওয়া উচিৎ বলে মনে করি তারই ভাবনায় এই লেখনী । আশা করি এর অবতারণা অনেকের কাছে পরিষ্কার হবে । আজ থেকে একটা নতুন কবিতার আসর যাত্রা করল সেখান কার উদ্দেশ্যে এটা লেখা এবং পরিবেশিতও হয়েছে ।



রচনাকালঃ- বিকাল ৫.২০টা বৃহস্পতিবার ১৪ আষাঢ় ১৪২৬
২৪ শাওয়াল ১৪৪০, ২৮ জুন ২০১৯ মিরপুর, ঢাকা ।