প্রেম বলে তোমরা যাকে বলছো স্বর্গীয়
তাতে মোটেও সমর্থন নেই আমার ।
দিব্য জ্ঞানে দেখছি যা আসলে তা শ্রেফ
দুর্নীতিরই আদর্শ এক সূতিকাগার ।  


এখন সত্য দিয়ে হয়না প্রেম, তা পেতে  
করতে হয় কত ছলাকলা মিথ্যাভান ।
দারোগার সন্তান বলে পরিচয়দানকারী
প্রেমিকের বাবাটা বাস্তবে দারোয়ান !


প্রেমেতে মিথ্যা ওদের শিল্প যেন, অপার
সম্ভাবনার দেহমন সবি যে করে নষ্ট ।
এতে সুস্থ থাকে ক’জনই বা, বাকী সবই
তো হয় নেশাগ্রস্থ উম্মাদ ও পথভ্রষ্ট !


মাথার ঘাম পায়ে ফেলে মা-বাবারা চায়  
সন্তানকে বানাতে শিক্ষিত বড় মানুষ ।  
পহেলা সেই শিক্ষার নামেই বাড়তি অর্থ
আদায় করে প্রেম মাস্তিতে হারায় হুঁশ ।  


ঐ শিক্ষার্থীরা আর কিছু শিখুক না শিখুক
শুধু মিথ্যা বলতে তারা যেন মহাপটু হয় ।
সেই দক্ষতা নিয়েই চলে ধর্ম কর্ম সবকিছু  
মিথ্যার আঁকড়ে দুর্নীতি সারা জীবনময় ।  


যে বয়সে মানুষ জীবন গঠনের লক্ষ নিয়ে
থাকে মত্ত, আর ওরা মত্ত থাকে প্রেমে ।
লক্ষহীন মেধাহীনভাবেই বেড়ে উঠে তারা
মিথ্যায় মত্ত থাকে মিথ্যামোহেরই ফ্রেমে ।    


বলি, যারাই প্রেম করে তারাই সব মিথ্যা
বলে, এই ব্যধিতেই জনজীবন ছারখার ।
রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতিতে সমাজের বিপর্যস্ততা
বাড়ছে, ঐ প্রেমই যে তার সূতিকাগার ।


রচনাকালঃ- রাত ১২.২৮টা রবিবার ২৭/০১/২০১৯
মিরপুর, ঢাকা ।