বিশ্বটা আজ থমকে গেছে
রাস্তা-ঘাট যে শান্ত আজ,
বাস-ট্রাকের নেই কোনো জট
ট্রাফিকের আর নেই তো কাজ।


হাট-বাজারে নেই কোলাহল
নেই দোকানে লোকের ভিড়,
ব‍্যস্ত শহর ঘুমিয়েছে আজ
খোঁজ মিলে না পথচারীর।


হাটুরে আর যায় না হাটে
কার্যালয় আজ মানুষহীন,
স্কুল-কলেজ বন্ধ যে আজ
শ্রমিকেরা বেশ স্বাধীন।


আজ হোটেলে নেই ওয়েটার
নেই মালিক আর কাস্টমার,
ফার্মেসীতে ভিড় জমেছে
ব্যস্ত মাস্কের দোকানদার।


লকডাউনে বিশ্ব ঘেরাও
দিব্যি আছে বিত্তবান,
শ্রমজীবীরা মরছে ক্ষুধায়
করছে তারা মৃত্যু পান।


আতঙ্ক যেন বাড়তেছে খুব
সব মানুষ আজ কুপোকাত,
সর্দি-জ্বর আর শ্বাসকষ্টের
হয়নি তো আর উৎপাত?


গোটা বিশ্বের বুক কেঁপেছে
নীরব ঘাতক এই ভাইরাসে,
নিঃসঙ্গে আজ বহু মানুষ
যেন মুক্তিই শুধু খুঁজতেছে।


খোদার কাছে চাই যে পানাহ্
আর স্বাধীনভাবে বাঁচতে চাই,
করোনারূপী এই আজাব থেকে
নিঃশর্তে মুক্তি চাই।