সংসয়
--------
-শরৎ নাকি? কী ব্যপার এই সাত সকালে এলে দ্বারে?
সূয্যি দেখ উঠছে পূবে, এস বন্ধু বসনা এসে পাশে।
-শরৎ হেসে চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে বললে হেসে
বন্ধু - আমার গায়েও লেগেছে বুঝি শুকনো খড়ি শীতের,
দেখছনা আমারও কেমন দেঁতো হাসি ভেতরে দুর্গন্ধ বাসি
অপুরা আর দৌড়োয়না কাশের বনে বনে।
দিন কাল তারিখ ধরে যদিও আমি আসি আজও
কেলেন্ডারের দাগ দেওয়া সঠিক তারিখে,
তবে সোনালী সেদিনগুলোর মত -
মনের কোণে দাগ কাটা আর হয়না জনমনে ।
বড় সাদামাটা হয়ে গেছি তোমার মাথার চুলের মত,
রসকষহীন উষ্কো খুষ্কো কাগুজে গোলাপ !!
আনন্দ উচ্ছাসগুলো আজ রেশনে মাপা চাল গমের মত ।
জল ভরা শত সহস্র চোখের আর্তি আবেদনে,
ওদের আকাশপানে ছুড়ে ধরা উদ্বাহু হাতের কোলাহলে -
মৃ্ন্ময়ী আদপেই কি চিন্ময়ী হয় আর?


-আজ তাহলে উঠি ভায়া,
দেখ তবে কতখানি আমাকে নিয়ে থাকতে পার মেতে
যা কিছু এনেছি ওই দেখ কিছু শিউলি কাশ আর পেঁজা তুলো সাথে ।
যতক্ষন এ’দেহে শ্বাস ততক্ষন রেখেছ আশ
জানি - তোমরা রেখেছ আজও সাথে।
------------------------------------
অমিতাভ (২.১০.২০১৬)