তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা আম্র মুকুলের মুহুমুহু গন্ধে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা মরা পাতা ঝরে পড়ছে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা সরিষা দানার হাসির বানে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা ঘন কুয়াশা বিদায় নিচ্ছে  
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা গাদার ভরা যৌবন দেখে।
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা ইরিবোরো সবুজ মাঠ জুড়ে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা গাছে গাছে নয়া পল্লব গজাচ্ছে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা উষ্ণ হাওয়ার দক্ষিণা অনুভবে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা কৈশর পাতার বিরবির আলাপনে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা কিশোরীর পায়ে নুপুর বাজে।
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা বালুচরে ঘাসফুলের বিছানা চেয়ে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা বাদাম ক্ষেতে আরতদার দেখে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা নদীজল ঝিলমিল চিলচিল করছে,
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা নদীর ধারে ফসলের গৌরব দেখে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা সোনালীরোদের ঝলকানি দেখে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা কোকিলের কুহু কুহু ডাকে।
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা কোন ফুল চুলের বেণীর ভাঁজে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা কৃষ্ণচূড়ার সরব উপস্থিতিতে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা পলাশ শিমুল চঞ্চল মনে,
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা সজারুর জাগ্রত মাঝে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা পরাগে পরাগে মৌমাছির গুঞ্জনে
তুমি যে এসে গেছো বুঝেছি তা বরণ পাখির মিষ্টি মধুর ছন্দে।


বৃহস্পতিবার
০৩ ফাল্গুন ১৪২৪
১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯


সকাল, যাত্রাপথ, গাজীপুর।