আস্ত রোস্টেড বীজসহ গ্রাউন্ড কফির
ধোঁয়া ওঠা সাদা মগ হাতে নিয়ে,
তোমার প্রেমকে বললাম, বলে ফেললাম
এ দ্বিধাবিভক্ত জীবনকে ক্রমশ সম্পূর্ণ দহন করে
শুধু তার উত্তাপটুকু আমি নিলাম
অধঃক্ষেপণে যে ছাই রয়ে গেলো
তার সবটুকুই তোমার হোক...


আমার আমৃত্যু ব্যথিত প্রানের
দূর্নিবার্য ধুসর খয়েরী ছাই
তোমার প্রেমের শীতল অনুষঙ্গে
কত টলটলে সবুজ ছিল একদিন!
অথচ ক্রমেই তোমার অহর্নিশ প্রেম কেবল
জ্বালাও পোড়াও করলো সারাজীবন...


তুমি আর তোমার প্রেম যেন
নিজের চোখে নিজের পীঠ দেখা
জ্বলে পুড়ে মরে ছাই হয়ে গেলেও
তোমাতেই আমার এ জন্মের শান্তি!
... ... ...


ঘরের আলো নিভিয়ে দিয়ে চোখ বন্ধ কর
কেমন এক সমুদ্র-নীলাভ আমায় দেখছো...!
যেন কোথায় এক মহাশূন্য নীহারিকায়
তুমি আমায় দেখেছিলে একদিন...
তোমার প্রেমে পুড়বো বলেই সহস্র নীহারিকা ঘুরে এলাম... .. .


উত্তরীয়ঃ
এ জীবনকে খুব সহজে কঠিন সচ্ছ স্ফটিকের মত সংজ্ঞায়িত করলে এই দাড়ায় - তোমার থেকে তোমার প্রেমকে আলাদা করতে এ পৃথিবীতে যে সময়টুকু কেটে গেল তারই নাম জীবন... জগত সংসারে শুধু গৃহদাহই হলো, যতগুলো ফুলেল বসন্ত এলো তা কেবল মনের ভুল... এ যেন সগতোক্তি, বলার সাথেই বাতাসে মিলিয়ে যায় অথচ তার রেশ থেকে যায় মহাকালের মননে... এ জীবনে মৃত্যুর চেয়ে বেচে থাকাই কঠিন অথচ তাতেই সকলের কি ভীষণরকম আগ্রহ... আমাদের সবার প্রানেই আগুন জোনাকি আছে, যে তাকে টের পায় সেই শুধু জানে এর কী দহন-জ্বালা...