এখানে এখন মৃত্যু হয়না স্বাভাবিক
                   হয় মৃত্যুর মিছিল  
এখানে এখন আজরাইল অদৃশ্য থাকে না লোকচক্ষুর
মানুষের ’পর ভর করে – সহজ করেছে তার প্রাণনাশের কাজ
       আর মানুষের এমন ঈশ্বরী রূপ দেখে হাসেন তাদের স্রষ্টা
সে হাসির মর্ম বোঝে না মানুষ
অদ্ভুদ! দারুণ অদ্ভুদ! আরশোলা বা পিঁপড়ার মতোন মানুষের প্রাণের দাম।


এখানে এখন মৃত্যু হয়না স্বাভাবিক
                  হয় মৃত্যুর মিছিল
এখানে এখন কেউ ফরিয়াদ শোনেন না
শোনে আপন ইচ্ছার যপ
তাই রক্ত এখন নদীর পানি, লাশ আবর্জনা
অসাম্প্রদায়িক মিছিলে সাম্প্রদায়িক বন্যা ।


কেউ নেই কেউ নেই এখানে এখন –
মৃত্যের লাশের চেয়ে জীবিত লাশই বেশি
আজরাইলের বোঝা হয়েছে হালকা ।
মানুষের এমন ঈশ্বরী রূপ দেখে হাসেন তাদের স্রষ্টা!


এখানে এখন অস্থির সভ্যতা
                মেসোজোয়িক যুগের রূপ
শান্তির পতাকা নিয়ে পায়ড়ার মতোন উড়ে যন্ত্রযান বুকে নিয়ে প্রাণনাশের বোমা
এখানে এখন মানুষের মনে নেই মানুষের জন্য মায়া
এখানে এখন দারুণ! দারুণ অস্থিরতা ।।