নিকষ কালো রাতের ছায়া খোঁপায় দোলে মায়া
যমুনা জলে চাঁদের আলো রাতের বুকে ছায়া
প্রেমের আলো মায়ের মুখ; সোনার বেশ রূপের নেই শেষ।
হাজার গাঁয়ে সবুজ পাতা বনের বেড়া চতুর্দিকে ঘেরা
সব খেলাতে মনের জোর হিজল পাখা বেশ!
নদীর বুকে দারুণ মায়া রাখাল ছেলে চলছে ছুটে  - আহা!
আমার গাঁয়ে রাত্রি হলে নিকষ কালো ওঠে জ্বলে  মধুর রূপে সাজে  
পাহাড় আঁকা বাঁশের ঝাড়, নদীর বুকে জল
সব ঘুমিয়ে তবুও খেলে  - রূপের বাড়া মমতা মাখা কেশ
জোছনা শাড়ি পড়েছে মাঠ জলের ঘাট করছে খলবল
জল তো নয় হৃদয় খেলে রূপা যমুনা বেশ!
হাজার নয় বাজার নয় একটা বাংলাদেশ।।