এসেছে সময়,দাঁড়া ঘুরে-
কতদিন আর ঘুমাবি তুই চক্ষু-কর্ণ খুলে;
আর কতকাল জাগিয়া ঘুমাবি,দেখবিনা তুই দেখে?
শুধু একবার চেয়ে দেখ ললাটে অনল মেখে।
আজ জিম্মি মোদের স্বাধীনতা চাঁড়াল লোকের চরন তলে,
পুড়িয়দে ঐ প্রলুব্ধ-গা আগুন দিয়ে;
প্রলয়োল্লাসে উঠরে মেতে চাঁড়াল পোড়া কালি নিয়ে।
মজুতদারের গুদাম ভরা,যতসব শস্য-সোনা,
গুড়িয়েদে ঐ প্রচীর দেয়াল-
কেটে যাক সকল অকাল।
খুলেদে মুখোশ ওদের-
রক্ত চুষে খায় যে মোদের।

ত্রিশলক্ষ শহীদ হয়েছে স্বাধীনতার মাঝে,
সেই দেশটাই দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়নও  সাজে!!!
দাঁড়া ঘুরে,দাঁড়া ঘুরে আজি সকল জনতা;
জীবন দিয়ে আনবো ছিনায়ে সত্য স্বাধীনতা।
মাটির সাথে আজ কপাল ঠেকেছে,
বুকের ভেতর ফুটছে অগ্নি লাভা,
মাটির গর্ভে তারে বিলীন করে দে-
দীন-দুখীদের সুখের জীবনে দেয় যে জানোয়ার হিংস্র থাবা।
দাবানলে পুড়ছে বিশ্ব,পুড়ছে সবার জীবন,
হিংস্র হায়নার মুখোশ খুলে কাপিয়ে দে এই ভুবন।
আইনের ব্যাটা আইন বানিয়ে ভঙ্গকরে আইন,
তাইতো তাকে স্বাগত জানাই--
বাহ জানোয়ার!!!ফাইন।
আর্মি-পুলিশ সবাই মিলে খাচ্ছে সদাই চাঁদা,
তাইতো এখনো আড়ালে আছে গডফাদারের দাদা।
সকল পশু সুযোগ বুঝে পেট ভরেছে ঘুষে,
অসহায়রা ন্যায্যবিচার পায়না তাই এই দেশে।
উপর আসনে বসিয়া পাজি-হয়েছে সোনার হরিণ,
ভাবছে সদা আসবে কখন ঘুষ গ্রহনের দিন।
এই পাজিরে টানিয়া নামা,শিকল পড়া হাতে-পায়,
আঘাতে আঘাতে বুঝিয়ে দে, রক্ত ঝরুক সারা গায়।

যেই মাটিতে ঘুমিয়ে আছে ত্রিশলক্ষ শহীদ স্বজন,
সেই মাটিতেই গেড়েছে ঘাটি দুর্নীতিবাজ ডজন ডজন।
ঘুরে দাঁড়া,ঘুরিয়া দাঁড়া তোরা,
সংগ্রাম করে বিশ্বমাঝে হয়ে ল' ধ্রুবতারা।
জানিনা কে করছে শাসন,কে-সে দেশের রাজা,
অন্যায়কে রুখবে মিলে দেশের সকল প্রজা।
রক্ত দিয়ে দেশ কিনেছি,অহংকারে বুক ভরেছি;
        পাইনি সুখের দেখা,
জীবন দিয়ে মুছে দেবো জাতির কালো রেখা।

খুলবো এবার মুখোশ তাদের-যারা দেশের নেতা,
দেশের মানুষ মইরা গেলেও নাইকো এদের ব্যাথা।
আসনে বসিয়া জাগিয়া ঘুমায় খোঁজ রখেনা কারো,
দেশের মাঝে চলছে শুধু জ্বালাও-পোড়াও-মারো।
নেতার ব্যথায় কাঁদছে জনতা জীবন মায়া ছাড়ি,
শোষক সমাজ গড়েছে তাই আকাশ ছোঁয়া বাড়ি।

আমি চিনিনা এম.পি,চিনিনা মন্ত্রী, চিনিনা প্রধানমন্ত্রী,;
আমি চাই শুধু এই মাাটির বুকে একটুখানি শান্তি।
অন্যায় করে উচ্চ মহলের পার পাবেনা কেহ,
মোদেরও আছে ওদের মত রক্ত-মাংসের দেহ।
ওরাও মানুষ,আমরাও মানুষ -নাহি কোন ভেদ,
তবু কেন মোরা মাথায় নেবো এই পশুদের ক্লেদ???
অন্যায় করিলে ওদের স্বজন-নেইকো কোন সাজা,
এই জানোয়ার সকল পাপের রাজা।
ধরা পড়িলে ওদের স্বজন মোবাইল ফোনে কয়-'হ্যালো,
ও-যা করেছে তাইতো ছিলো ভালো।'
আইনের ব্যাটা ভয়ের চোটে সেলুট মারে তারে,
এইভাবে সবাই ঠেলে দিয়েছে দেশটা অন্ধকারে।
সুখের নামে দুঃখ ঢেলে,আগুন দিয়ে পুড়ে;
ওরা কেন আজ জীবন পালে সুখের হাওয়ায় ঘুরে?
চাইনা এমন মন্ত্রী-এম.পি,চাইনা এমন রাজা,
কোথায় সবে-আজি এদের বিদায় ঘন্টা বাজা।

দাঁড়া ঘুরে,ঘুরিয়া দাঁড়া-কোথায় তোরা সবে?
আয়রে দেশের কোটি জনতা-রাজ পথে আয় নেমে,
হায়নার দল চুষবে রক্ত আর যদি রই থেমে।
বিপ্লবেরই ময়দানে আজ সময় এসেছে চলে,
অন্যায়কে রুখতে হলে-একসাথে আজ উঠরে সবে জ্বলে।