মানবিক চেতনার দৃপ্ত কলমের বিখ্যাত কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের সাথে এই অনামি কলমচির কাল্পনিক সাক্ষাৎকার একক বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে -
- প্রণাম। ধৃষ্টতা মাফ করবেন অনুজপ্রতিম এই কলমচির।
আপনার 'ছাড়পত্র 'র ছেড়া পাতারা কি আজ উপহাস করে তার স্রষ্টাকে?
কবি সুকান্ত ধৃষ্টতা নয়। স্পষ্টবাদীতার আমি প্রশংসা করি।
তােমার ওই আলকুশি বইটার উপহাস কবিতাটা আমি পড়েছি।যথার্থই লিখেছ- '.... দৃঢ় তার অঙ্গীকারে ভেংচি কাটে সদ্যোজাত জঞ্জাল দূর এতই সােজা! স্বীকার করতে দ্বিধা নেই এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযােগ্য করে যাব...' সত্যিই আমার এই সৃষ্টি আজ যেন আমাকেই উপহাস করে। উত্তরে শুধু একটা গভীর দীর্ঘশ্বাস ছাড়া আর কিই বা দিতে পারি তােমাকে। কিন্তু সেই শিশুরা তাে আপনাকে উপহাস করেনি। শােকেউথাল পাথাল তাদের হতভাগ্য বাবা- মাকে সান্ত্বনা দিয়েছে,আপনাকেও  মিছে তােমাদের বিলাপ করা, মিছেই করা কান্নাকাটি 'অদ্ভুত আঁধার..' দেখার আগেই খুশি মােরা পেলেম ছুটি ; আক্ষেপ তুমি করাে না কবি মিথ্যে দেখে অঙ্গীকার ধরাে না কেনাে নিয়তির রহস্য এ দুর্নিবার। তাহলে আপনার এই দীর্ঘশ্বাস কেন?কবি সুকান্ত সৃষ্টি যদি স্রষ্টার কাছে প্রহসন হয়ে দাঁড়ায়, যদি সে ব্যর্থ হয় তার লক্ষ্য পূরণে তাহলে সেই সৃষ্টি যে কি বেদনাদায়ক -এক অব্যক্ত যন্ত্রণা সারা জীবন তার স্রষ্টাকে বয়ে বেড়াতে হয়,রক্তক্ষরণ হয় ভেতরে ভেতরে যার কোন নিরাময় নেই তা তুমি।অখ্যাত হলেও একজন লেখক বা কবি হিসাবে তােমার অজানা থাকার কথা নয়। শুধু সদ্যোজাতদের বাসযােগ্য করার ব্যার্থতাই তাে নয় আমার সাবালক 'আঠারাে বছর বয়স ' ও তাে আজ আমাকে উপহাস করে।
- কিন্তু সে দায় তাে আপনার নয়। আপনার সেই 'আঠারাে বছর বয়স ' আজ বিশ্বায়নের কলে বন্দী। তার আকর্ষণী ক্ষমতা এতই শক্তিশালী যে তাকে এড়াবার ক্ষমতা তাদের নেই। আর পরিবর্তন তাে ঈশ্বরেরই আদেশ। তাহলে এই আত্মগ্লানি কেন! কবি সুকান্ত কিছুটা ঠিকই বলেছ তুমি। কিন্তু যখন দেখি আদর্শ- ঐতিহ্যের পাতাগুলো ঘূর্ণমান সেই কলের শাণিত পাখনায় কচকচ করে কাটা হয়ে যায় তখন যেন অস্তিত্বের সংকটকালের পদধ্বনি শুনতে পায়।
_ তাহলে আজকের এই আঠারােদের জন্য আপনি কি বার্তা দেবেন?
কবি সুকান্ত - ইচ্ছে করে না। তবু বলব জাতিংগা পাখির মতাে অন্ধ অনুকরণে তারা যেন ছুটে না যায় ওই রংবাহারি কলের চাকায় পিষ্ট হতে। সনাতনীকে অবজ্ঞা করে নয় তাকে প্রাণবন্ত রেখে বিশ্বায়নের সাথে মেলবন্ধনে জেগে উঠুক আজকের আঠারােরা নিজেদের মুক্ত বিবেকে।
- শেষে, বড় জানতে ইচ্ছে করে একটা কথা।আপনি তাে বামপন্থা মতাদর্শে বিশ্বাসী। ছিলেন এককালে কমিউনিস্ট পার্টির সক্রিয় সদস্যও। সেই পার্টিও তাে আজ অস্তমিতপ্রায়। তার অস্তিত্বের  এমন সংকটকাল আগে কখনাে আসেনি। এ ব্যাপারে যদি কিছু বলেন!
কবি সুকান্ত - দেখাে সাহিত্যের আড্ডায় রাজনীতি আলােচনা বড় বেমানান। তবুও তাে একথা অস্বীকার করার উপায় নেই।যে বামপন্থা মতাদর্শকে আজও আমি মনে মনে পােষণ করি।তাই তােমার এই প্রশ্নের উত্তরে এক্ষেত্রেও সেই একই কথা বলব শুভবুদ্ধির উদয় হােক। এসাে আজ আমরা আমাদের এই মূল্যবান সাক্ষাৎকার শেষ করি সকলের মঙ্গল কামনায় বিখ্যাত আমেরিকান কবি এমিলি ডিকিনসনকে স্মরণ করে - " Hope is
the thing with feathers that perches in the Soul   And sings the tune without words and never stops at all".