ছেঁড়া কিছু মেঘ আবহাওয়া যা ছিল আজ ভারি
স্বীয় গতি মন্থর ছিল ছেঁড়া মেঘের মতোই
হু হু করে উড়েছে বালি তুমিই বললে আড়ি


বৃষ্টিহীন সামনে নদীর জল তবু বয়ে যায় সেরকম টলটল
প্রবাহিত হাওয়া তোমার মতো নীল রেখাপাত নেই
শুনেছি আমি সচল ধাওয়া করো অবিরাম অবিরল


কথার উপরে জমলো শুধু ধুলো মুছল যেতে যেতে
তোমার মতোই প্রবাহ সব ঝরে শুন্য বিকারহীন
দেখি প্রপাত খুঁজে পাও অলক্ষে ভিজে হাতটা পেতে


চিহ্ন কেবল ছড়িয়ে আছে সমস্ত খান খান
ভরসাটুকু ছিল দিলাম শুধু অলক্ষে রইল পড়ে ধু ধু  
পালক ঝরে পরে বাতাস থেকে সঙ্গহারা প্রান


তোমার শুধু আছে এই বালিশটা ছিঁড়ে ফেল প্রাতে
আমার কিছুই নেই শুন্য একা তোমার মাঝে রই
তোমার বুকে অনেক অস্তিভারে লক্ষ ছিল হাতে হাতে


যেই মুহুর্তে ভাঙ্গল তোমার মন স্খলিত হাতটা পাবে
মিথ্যা তবু সরে যেতে যেতে সজ্ঞান হোই মধ্যরাতে
খবর পড়ি উপুড় হয়ে পড়ি কোনদিনও চাওনি আমাকে