অসিম যেমন প্রমিক ছিল, তারা ধরা ছিল শখ
হারের থেকে জিততে শিখল, গুনতে থাকল ছক
যুদ্ধে অসিম যুদ্ধ করে, কত রক্ত যায় বয়ে
প্রেমিকার মুখ ভেসে ওঠে চোখে, আপন ইচ্ছা থুয়ে
গুনতে গুনতে কাটাল দিন, পেলনা খুঁজেই দিক
উপায় খুঁজে পেলনা অসিম, ইচ্ছা ভরা প্রেমিক
রক্তে রক্তে ভেসেছিল পথ, ভেসে গেল কত লাক্ষ
অসিমের মন অসীম তবুও, উঁচু বড় তার নাক
ওদিকে তখন ফাগুন সময়, রঙ মারে পিচকারী
নন্দিনী আজ কিশোরী হতে, পৃথিবীর মত নারী
সম্মতি আর অসম্মতিতে, মন দিয়ে যায় দোলা
নারী নন্দিনী ভয়ে কেঁপে ওঠে, অযথা রাত্রি বেলা
এদিকে অসিম যুদ্ধে তখন, স্মৃতিতে প্রিয়ার মুখ
নিজের দশা বুঝল অসিম, ঘর ও প্রিয়ার দুখ
ওদিকে তখন কাঁদে নন্দিনী, দীর্ঘ প্রতীক্ষা ক্লেশে
অজানা গাঁয়ের মা হয়ে গেল, বিয়ের বছর শেষে
শুখনো মুখে ছন্দছাড়া, অসিমের কাঁধে ঝোলা
অপার অসিম আজও চলেছে, আপন মনেতে ভোলা


-------------------------
@নীল অভিজিৎ