ব্যাঞ্জন
- ভাস্কর পাল


বিষণ্ণতা জড়াগ্রস্থ, উৎফুলিত কঠোর
হে তুমি কতটা আলোকে বন্দি করে-
হয়েছো আলোকিত?
ভিজে বারুদের স্তূপে বন্দি থেকে-
শক্তিও কি তবে স্তব্ধ?
অবাঞ্চিত চেতনা জেগেছে তবু প্রান্তটা অচলিত।
বিহব্বল হাসি, মায়াবী নারী
ঐ দূরেতে বাস;
কীসের যাদু - কীসের মায়ায় অ্যালকোহলের দাস!
ল্যাম্প পোস্টের হলদে আলোয় সোডিয়ামের ভরপুরতা,
আচমকা সব বাসনা গুলো
জোনাকির মতো নিভৃত!
কীসের কম্পনে কম্পিত হে;
কীসের শঙ্কায় চিন্তিত?
আছে বসন্তের সেই রঙীন স্পর্শ
আছে সেই লম্বা চুলের গ্রাম্য মেয়েটি;
আছে কষ্ট চাপা মুখ ফোটানো তার স্নিগ্ধ হাসি।
সময়ের ভিড় দাসত্ব বেঁধেছে, দাসত্ব বাঁধনি তুমি!
গতির পথ ছিন্ন আজ ছিন্ন নই যে আমি।।