শুশ্রুষাকারী
বিপ্লব দাস


আমার দিনগুলো কাটছে অন্ধকারে
কোনদিন এমন মনে হয়নি শুশ্রুষাকারী
তোমার দৃষ্টির দরদে, আমি হয়েছি নেশায় বুঁদ।
ভীষণ আবেগ ঘটিত বিস্ফোরণ
                             ভেসে যায় নীলাম্বরে।।


তোমার ধ্রুপদী নৃত্যের উৎকর্ষ
                         দেখি হৃদয়ের জানালা খুলে।
যতটুকু সময় সঞ্চয় হয়েছে জীবনে,
যে প্রেমের ইশারায় হয়েছে অবশ– শুশ্রুষাকারী।
এই জ্বালায় জল ঝড় আর ভালো লাগে না
আঁখির পাতায় টলটল করে।


কেন এমন মরণব্যাধি হোঁচট খেতে এল পৃথিবীর দরজায়?
তোমার নৈবেদ্য পংক্তিগুলো
                অদ্ভুতভাবে রেখেছে আমাকে অক্ষুন্ন।।


তবু দিনগুলি কাটছে অন্ধকারে;
কি যন্ত্রণায় নিয়মিত ঝিনুকের ন্যায় জীবনযাপন।
প্রকাশ্যে বারুদ বাজি ভাইরাস করে জায়গা দখল
লাশের পর লাশ নাগালের বাইরে।।


ঘাত প্রতিঘাত ভয়ার্ত এ
তবুও হৃদয় চাই;
আমার দরজাটা স্বর্গ ভেবে দিও একটু টোকা,
ফুরিয়ে যাবে প্রবল যন্ত্রনা–
দেবেতো অভিমানী
                 মায়াজালের সেবিকা।।


             রচনা– বিপ্লব দাস
          ১২ মে২০২০