একটা পুকুর চেয়েছিলাম!
[email protected]@@


একটা পুকুর চেয়েছিলাম আমি -
যার বুকে প্রাচুর্যের ঝলকানি না থাকলেও
জ্বলবে না অভাবের বহ্নিমান শ্বাসে ঝরা
ভীরু বাতাসের কার্পণ্য।
শ্যামলা ষোড়শীর হাস্যজ্জ্বল বদনের মতো
স্বচ্ছ টলটলে জলের উপর ভাসবে
লকলকে কিছু কলমি ফুলের খলবলে আশা।
দূর্বা ঘাসের সবুজ আস্তরণে জাগা বিশ্বাসী পাড়ে থাকবে
মায়ের আঁচলের মতো গভীর মমতা মাখা
ছায়া দানকারী ক’টা বৃক্ষ।


ঘর্মাক্ত বিকেল পেলেই ক্ষেত থেকে উঠে আসা
ক্লান্ত কৃষকের মতো, পা দু’টি বিছিয়ে
খুব আরাম করে বসতাম আমি সেখানে।
মধুমালা মদনকুমার নাটকের রাত জাগা শ্রোতা সেজে
নিশুতি রণনে কান খাড়া করে শুনতাম
সুরেলা ঝগড়ায় রত রকমারি পাখির হৃদয়ষ্পর্শী কলতান,
আর তৃষ্ণার্ত দু’চোখে দেখতাম -
কলমি ফুলের আড়ে আমার সিনথীয়া মা’র ডাকে
মেতে উঠা ফুটফুটে দু’টো হংস ছানার
নিষ্পাপ জলকেলি।


[email protected]@@
পাঁচুপুর, আত্রাই, নওগাঁ।
০৬/০৮/২০২২ইং।



@বোরহানুল ইসলাম লিটন