দৃষ্টিনন্দন,শৈল্পিক তার পেশা,
চা পাতা ছেড়া,নয়কো নেশা।
ভোর থেকে ঐ দূর পাহাড়ে,
কড়া রোদে চামড়া ঝলসে।
চা শ্রমিকের জীবন সমাজ,
জেনে মন ভীষণ লাজ।
কাটছে সময় অর্ধাহারে,
ঝড় বৃষ্টিতে অনাহারে।
কিছু টাকা  ঋণ নিয়ে,
স্বপ্নের গাভী আনে কিনে।
আড়া জানে, পাড়া জানে,
সংসারে যেন সুখ আনে।
চা শ্রমিক স্বচ্ছল হলে,
ছিঁড়বে না পাতা,কম বেতনে।
হঠাৎ একদিন খবর পায়,
গাভী মরছে বিষ খায়।
গোপন সংবাদে খবর রটে,
বাবাজী তার দুষি তাতে।
নেই শক্তি সামনে যাওয়ার,
বিচার রাখে অদৃশ্যের দরবার।