অঝোরে ক্লান্তিহীন একটা বৃষ্টি-ধারা নামুক না
আমি পদ্ম পাতা হবো,
ভিজবো অবিরত !


কদম বৃক্ষের ডালে জবুথবু কাকও হবো
ঠায় দাঁড়িয়ে থাকবো ,স্থির কদমের মতো
অষ্ট অঙ্গে ভিজে হবো একসার
বৃক্ষের সুরে সুর মিলিয়ে হবো একাকার !


নয়তো ,
নির্জন নীল দ্বীপে সমুদ্রের উত্তাল বুকে
বর্ষণ মুখরতায়
আমি বিলীন হবো
কর্ম-চঞ্চলতাহীন অলস কোন ক্ষণে !
বৃষ্টির রোমাঞ্চকর আবেশে স্মৃতির অতলে হারিয়ে যাবো
ফিরব না সহসা , শুনব না কোন বারণে !


কিন্তু মেঘ বুঝে কী,
আমার আকুতি?


সে কেবলি ভেসে ভেসে দূরে হতে দূরে চলে যায়
কে বা ডাকে সেথায় , দিগন্তের ওপাড়ায় ?
সে কী আমার চেয়ে বেশি, হৃদয়ের কথা তারে শোনায় ?
কী সে ভাষা , সে ভাষা কোথায় , কে তারে শেখায় ?