এই জলেই 'আগুন জ্বলে '
জলের ক্রোধে মানুষ ভাসছে জলে
   জল যেন হায়েনা ,
   কোন বারণ মানে না
সে জ্বলছে প্রতিশোধের স্পৃহায় !


   মানুষ খেয়েছে নদী
নদী এখন মানুষ খেতে চায়
সাধ্য কার তারে ফেরায় ?
   কে করেছে পাপ
  কে তার সাজা পায় !


    হামাগুড়ির শিশু
ভেসেছে পানির তোড়ে ;
ও পাড়ার সুমা , বিল্লাল গেছে মরে
  সব কী আর আসে খবরে ?



এঁদের চাল নেই ঘরে
চুলো গেছে মরে ,
মরার পানি থই থই উঠোনে
শোবার খাট ভেসে গেছে জলে
ভেজা বিছানা তাই চালের উপরে !


  সাপ ওঠেছে মরে,
  গরু ভেসে গেছে
পেট তো বুঝে না কিছু
ক্ষুধা তাই পাল্লা দিয়ে বাড়ে !


   দিনে দিনে বাড়ে অনটন
জীবনের আরও কত কী প্রয়োজন !
বাড়ছে অসুখের প্রকোপ
   অসুখে কী করে  হবে
কেনা অসুধ , বিসুধ ?


মানুষগুলোর গালে হাত
    দিন তবু যায় ,
থেমে যায় রাত!
    ঘোর অমানিশায়
     বেঁচে থাকা দায়  
বাড়ালে কেউ হাত
ভাবে, বুঝি এল দেব-দুত !


দিন কাটে কিছু ত্রানের আশায়
ত্রাণকর্তা পথ ভুলে যায়
ত্রাণ যায় না হেথায়
ওই ব্যাকওয়ার্ড পাড়ায় !


তারা দেখে অভাবের কত বর্ণালি সাজ
জলের খেয়ালে তারা বানভাসি আজ !


    তারা বুভুক্ষু, নিঃস্ব , অসহায় ,
আপন নিবাস ভুলে রাস্তায় দাঁড়ায়
   ওদের সব গেছে বন্যায় !


তলিয়েছে ফসলের জমি -মাছের পুকুর
জলকেলিতে ভাঙছে বসত এবার !