আজ সকালে উঠে দেখি মেঘলা রোদ ,
মনটা কেমন যেন উদাস হয়ে গেল ।
কি করবো ভেবে না পেয়ে পুরানো ডাইরীটা -
খুলে দেখতে দেখতে তোর ঠিকানাটা চোখে পড়লো ।
তোকে এই চিঠিটা লিখতে বসে গেলাম ,
অনেক দিন পরে কি লিখবো ভাবতে লাগলাম ।
অনেকদিন তোর সাথে দেখা হয়নি ,মনটা খারাপ,
তাই আনমনে লিখে চললাম মনে কিছু প্রলাপ ।
হ্যাঁ বল তুই কেমন আছিস ,এখানে আসছিস তো ,কবে ?
তুই এখানে এলে অনেকদিন পরে তোর সাথে দেখা হবে ।
অঞ্জনা তুই এখন কি করছিস ,সংসার না চাকুরী ,
দেখিস সাবধান কিন্তু ,যেন না হ্য় মনচুরি ।
আমি জমিয়ে সংসার করছি ,বড্ড একঘেয়েমি ,
তোকে আর কি বলি ,আমার ছেলে মেয়ের পাগলামি ।
বায়না ধরেছে ,যাবে তারা বিদেশ ভ্রমণে ,
তাদের কি করে বোঝাই বল ,আমার সময় কোনখানে ।
তুই একবার আসবি এখানে অঞ্জনা ,আয়না ,
তাহলে সবাই মিলে একসাথে যেতাম ,ওদেরও মিটতো বায়না ।


          ********************
সকাল - ৯:৩০ মিনিট ,
৩০/০৩/২০১৯ শনিবার ।
কেরাণীটোলা = মেদিনীপুর ।