কালি মেখে কালোসোনা খেলে কালো জলে ,
কঙ্কাল সার কর (হাত) তার কৌমুদিনীর কোলে ।


কাঞ্চনপুরের  কাঞ্চনার কাঙ্কন বাজে হাতে ,
কলস কাঁখে করে কঙ্কনা  চলে কাঁকর পথে ।


কুন্তী বাঁধে কবরী কেবল কাল কুন্তল কেশে ,
কবরীতে গুঁজে করবী তাতে কনক চাঁপা সাজে ।


কৃষ্ণ নগরের কমল কোলে ,কুড়াল কাঁধে ,কদম্বেরি তলে ,
কোদাল হাতে কান্ত কাকা কেবল কৃষ্ণ কৃষ্ণ বলে ।


কুমোর পাড়ায় কুপায় মাটি কষ্ট করে কত ,
কাদা দিয়ে কার্তিক ঠাকুর গড়ে কুমোর ছেলে যত ।


কমলা কাকি কেমিজ পরে করে কিসের কাজ ,
কোপ্তা ,কাবাব ,বানায় কাকি ,রাঁধে কলমী শাক ।


কৃষ্ণকমল কাস্তে করে কাটে ক্ষেতের ধান ,
কৃষ্ণকান্তের উইল মোদের বাড়ায় দেশের মান ।


কাঁথার উপর নকসা করে কস্তুরী ও কাবেরী  ,
কলকে আঁকে কালো  সূতোয় কেমন দিয়ে কালি ।


কাঞ্চন আর কলকে ফুলে পূজে কৃষ্ণ কালী ,
কার্তিকেতে পূজে কালী ,কুবের আর মহাকালী ।


        🌾🌾🌾🌾🌾🌾🌾🌾🌾🌾🌾