বসন্তের আগমনে মুকুলিত আম্রবনে ,
অলিকুল গুঞ্জনে কেতকী বিথীকা সনে ।
কাঞ্চন বিকসিত ফাগুনের নিমন্ত্রনে ,
দোয়েল কোয়েল শিসে মাতাল যুথিকা বনে ।


ফাগুনে জ্বলে আগুন পলাশ শিমুল শাখে ,
কোকিল মধুর গানে মাতাল দিকে দিকে ।
ডাহুক ডাহুকী ডাকে বৃক্ষ শাখায় ,
বনু বনে  মর্মরে দক্ষিনা বায় ।


নীল যমুনার জলে বহিছে উজান ,
বসন্তের আবাহনে মিষ্টি মধুর তান ।
কম্পিত নদী জল ঝিলিমিলি  করে ,
নৌকা নোঙর করা বেলাভূমি 'পরে ।


রাখালের বাঁশীর সুর ঐ শোনা যায় ,
জনহীন প্রান্তরে সুর ভাসিছে হাওয়ায় ।
গাঁয়ের যত ছেলে মেয়ে সেদিক পানে ধায় ,
যথা বট বৃক্ষতলে রাখাল বাঁশরী বাজায় ।


বসন্তের রঙে রাঙে প্রেম অনুরাগ ,
সানাইয়ের সুর বাজে বেহাগের রাগ ।
কৃষ্ণচূড়া পাপড়ি মেলে রাঙা রঙে রেঙে ,
   হিয়া রাঙা বসন্তের  প্রেমঅনুরাগে ।