যখন সন্ধ্যা নামে সাগরের জলে ,
দিবাকর অস্তমিত মহীধর কোলে ।
পক্ষীকুল নীড়ে ফিরে কাকলি কুজনে ,
আবীর রঙ নদী জল বহে কলতানে ।
বৃক্ষ শাখে কুহু ডাকে নিশার স্বপন জাগে ,
জোনাকীর  ঝিকিমিকি পাতার ফাঁকে ফাঁকে।  
রাখালেরা গোধেনু ল'য়ে যায় গৃহ মুখে ,
শ্যামলী ধবলী গাভী চলে গোয়ালের দিকে ।
হংস হংসী  খেলে কালো দীঘির জলে ,
জল থেকে পাড়ে উঠে চলে হেলে দুলে ।
গৃহস্থেরা সন্ধ্যা বেলা সাঁঝ বাতি জ্বালে ,
গৃহবধূ ধূপ ,ধূনা ,প্রদীপ , দেয় তুলসী তলে ।বালকেরা যে যার ঘরে ফেরে খেলা শেষে ,
সন্ধ্যাবেলা বাড়ী ফিরে বই নিয়ে বসে ।
চাষীভাই মাঠ হ'তে আসে ঘরে ফিরে ,
চাষীবৌ জল গামছা দেয় হাতে তারে ।
সন্ধ্যাবেলা সদরেতে খোলা হাওয়ায় বসে ,
ভাল মন্দ ,সুখ দুঃখের গল্প করে কষে ।


      
      ***************