ঐযে দূরে সবুজ গাঁয়ে
ধানের ক্ষেতে মেঠোপথে
বিটুমিনের কালো রঙে
যা এখনো যায়নি ঢেকে
সেথায় এক  মাটির ঘরে
চিরনিদ্রায় আছে শুয়ে
আমার বাবা আমায় ফেলে।
গুবরে পোকা দুব্বো ঘাসে
লুটোপুটির খেলায় মাতে
বাবা যেন স্নেহের পরশে
ওদের খুব আগলে রেখেছে।
খানিক দূরে স্বচছ জলে
বক পাখিরা আধার খুঁজে,
এমনি সফেদ বেশেই সে যে
বিদায় নিল আমার থেকে।
পশ্চিমে ঐ দূর দিগন্তে
রাঙ্গা সূর্য যাচ্ছে পাটে
রাঙ্গা চোখে আমিও ডুবে
যাচ্ছি যেন অন্ধকারে,
জানি বাবা আসবে না ফিরে
তবুও এ মন তাকেই খুঁজে।
ঐ খানে তেই একটি কোনে
দাদীও আমার আছেন শুয়ে
ছেলেকে তার আঁচল তলে
মায়ার জালে জড়িয়ে রেখে
আমায় যেন যাচ্ছে ডেকে
মটর ফুলের মালা গেঁথে।