কখনও যদি আমার ছোঁয়া পেতে ইচ্ছে করে,
তোমার বাড়ির বারান্দার বিচানার গায়ে হাত বুলিয়ে নিও, যেখানে
পরম বিশ্বাসে চুপটি মেরে লুকিয়ে ছিলে আমার বুকে,
তুমি আমার ছোঁয়া পাবে ঐ কোমল বিচানায়।


কখনও যদি আমার পাশে বসতে ইচ্ছে করে,
ঐ সাগর পাড়ে এসে বসো,তীরের গায়ে সুসজ্জিত পাথরগুলো
আজও রয়ে গেছে মোদের প্রেমের সাক্ষী হয়ে, যেখানে-
প্রথম আমার ঠোঁট তোমায় ছুঁয়ে ছিল।
কিছুক্ষণ চোখ বন্ধ করে সাগরের গর্জন শোনো,
এই দেখো! আমি তোমার ঠিক পাশে বসে আছি।


কখনও যদি আমার সাথে কথা বলতে ইচ্ছে করে,
যখন মধ্যরাতে এই শহরে নিস্তব্দতা নেমে আসবে,
স্বামীকে ঘুম পাড়িয়ে তোমার বাড়ির ছাদে এসো,
আমি ঠিক আসবো একান্তে কথা বলতে।


কখনও যদি বাড়িতে ভালো রান্না হয়, আর
তোমার আমাকে খাওয়াতে ইচ্ছে করে, তবে
দরজার পাশে দাড়িয়ে থাকা বৃদ্ধ ভিখারীকে
একবেলা পেট পুড়ে খেতে দিও।
কোন এক গ্রীষ্মের দুপুরে আমিও আসবো তোমার বাড়িতে
ভিখারীর বেশে!


কখনও যদি তোমার মনে শিহরণ জাগে মোর তরে,
কোন পুর্ণিমার রাতে, খোলা আকাশের নিচে,
দুহার বুকে নিয়ে লম্বা শ্বাস নিও।
তুমি আমার ছোঁয়া পাবে ঐ মিষ্টি বাতাসে।