ফি বছর তুলবে আবার মাটির চাঙড়
জুড়ে হাল ঠেলবে নাঙল তীক্ষ্ণ ফলায়,
কে আর ভাঙবে নিশীর জমির আলের,
পোড়া ধান কৃষাণ বিবি তুলবে গোলায়,
দাইবে না ধান ভোলার জমায়,
জলের দামে বেচবে কি সে মৌলতা ধান হাটখোলাতে
জোড়া মন বেচলে যদি সেরেক খানিক গোস্ত মেলে,
সে যেন ধানের দায়ে ভুখাকাঙাল?
রাঁধবে আবার বাসমতি চাল নবান্নতে
গোরের পাশে নাম ফলকে নাঙ্গল জোয়াল,
ঝুলবে যেন কৃষাণ বাড়ির গোর খানাতে!
ফি বেলা নিজ জমিতে কামলা খাটা হাড় -- হাভাতে,
গোলামির রজ্জু বাধা ন্যাজ্জ্য দামের মস্করাতে,
লহুতে খুন চেপে যায় আত্মহত্যায় লাগাম টানে,
কৃষানে ডাকবে যদি চাষ অবোরোধ,
শূন্য মাঠে হাহুতাসের ঢেউয়ের মিছিল,
তবে কি অন্ন বিনে দুবেলাতে তোমরা খাবে কাষ্ঠ পাথর,
সে যদি পাঁজর চিরে রক্ত ফলায় ধানের দায়ে দগ্ধ মাঠে,
তবে কি কৃষান পাবে ন্যাজ্জ দরের ভগ্ন খোয়াব,
পোড়া হাল জুড়বে আবার কি মৌতাতে?
কৃষানের চাষের মাঠে ফলবে আবার ধান মহাপাপ!