একটা স্বপ্নউড়ান দেবো
দুখানি হালকা ইচ্ছেতে ভর করে ,
অন্ধকার তখন হুমড়ি খাচ্ছে কালো শাড়ির ভেতর ,
পরিযায়ী পক্ষী গোটা কয় তখনো তীর হয়ে উড়ছে
আরো অনেকটা কালো পেরিয়ে গেলে হয়তো
আলো পেয়ে যাবে রাত পেরিয়ে যাবার ,
আকাশটাকে নিজের করে নিতে পারবে
তারপর একটা লম্বা উড়ান

যে স্বপ্ন থাকে না , ভেঙে যায়
উড়ন্ত যন্ত্রের চাকা থেকে ছিঁড়ে
টুপটাপ ঝরে যায়
সে কি জানতো না ! জানতো এ দেশ মানুষের না ,
এ মৃত্যুর দেশ , এ দেশ আর্তের নয় ,
আর্তনাদের প্রতিধ্বনি ওঠে শেষ উড়ানে ,
হয়তো জেনে বুঝেই দুঃস্বপ্নের ভেলায়
ভাসিয়ে দিয়েছে অসম্ভবের দুয়ারে ।