জীবন পরিক্রমায় কেউ করে গ্রাস,
কেউ হয় গ্রাসিত, এইতো চলছে—
চিরাচরিত নিয়মে;
অতঃপর পৃথিবীর বাসিন্দারা—
মানিয়ে নিয়েছে তাদের গ্রহের সাথে৷


স্থির যারা স্থির-ই আছে,
তবে অস্থির বা চলমানও হয় মাঝেমধ্যে;
চলমান অনেক কিছুই থেমে যায়,
থেমে যায় অসংখ্য প্রাণ!
এরই নাম জীবন, এরই নাম বিধান৷


কখনো সৃষ্টি সুখের উল্লাস,
কখনো ধ্বংসের তাণ্ডবে করুণ হাহাকার;
ক্ষণেক আনন্দ, ক্ষণেক দুঃখ,
এভাবেই চলছে বিচিত্রময় এই গ্রহ—
নিজের নির্দিষ্ট সময়কাল পূর্ণ করতে৷


শস্য গ্রাসে পোকা, পোকা গ্রাসে ব্যাঙ,
তারে গ্রাসে সর্প, ঈগল গ্রাসে সর্পের দেহ,
অথবা বীজ থেকে চারা হয়ে—
চারা থেকে বেড়ে গিয়ে ফুল-ফল ধরা,
অবশেষে ধ্বংস হয়ে আবার সেই বীজ!
এইতো চলছে জীবন-পরিক্রমা!


আমরা মানুষ, পৃথিবী পরিভ্রমণে—
নেই হুঁশ, সর্বভোগী, সভ্যতার আড়ালে—
অসভ্য, বর্বর এই গ্রহের আপদ!
প্রতিনিয়ত ঝঞ্ঝাটের তৈরি করে—
অবশেষে মাটিতে পূর্ণ হয় উদর৷


রচনাকাল— ৩০-১১-২০২০