তোমারে খুঁজেছি আমি নভ-নীলাম্বরে,
হেসে হেসে বলেছে সে অবজ্ঞার সুরে-
"যারে তুমি খুঁজো বাছা সে তোমার মাঝে৷"


খুঁজেছি তোমারে ওই নীলাম্বুর-তীরে,
প্রচণ্ড বেগেতে এলো ঊর্মিমালা ধেয়ে,
লোনাজল কাদাবালি দিলো সে তা ছুঁড়ে৷


তোমারে খুঁজেছি আহা মরুমাঠ-পানে,
উত্তপ্ত বালুকারাশি  লু-হাওয়ায় মিশে-
ধমকিয়ে বলে দিলো "যা-রে ফিরে ঘরে৷"


খুঁজেছি তোমারে আমি সমীরণ মাঝে
ঠেলে সে দিলো আমায় আগুনের কাছে,
আগুনের স্ফুলিঙ্গরা রক্তিম এ রাগে-
বলে "শুন ওরে বোকা তাঁরে পাবে না রে৷"


তারপর ফিরে আসি ব্যথাহত হয়ে!
খুঁজে খুঁজে তোমাকে গো হতাশায় ডুবে-
অবশেষে পেয়েছি তো মনের মাঝারে৷


রচনাকাল-
২০১৮