লজ্জিত আমি লজ্জিত ,
       এই সমাজ দেখে আজ আমি লজ্জিত ।  
ধর্ষণকারী ধর্ষন করেছে আমাকে
        সমাজ ছি ছি দিয়েছে আমাকে।
পাড়া প্রতিবেশী আজ রাইমা থেকে ধর্ষিতা বলে ডাকছে ,
            আহা ডাকছে।
মায়ের - বাবার অসম্মান মানতে যে আর পারছি না,
           আহা পারছি না।
তাই কিছু না ভেবেই দিতে গেলাম গলায়  ফাঁস,
ফাঁসির মঞ্চ হতে ফিরে এসে হলাম আমি ঘর ছাড়া,
               আহা ঘর ছাড়া ।
যাওয়ার আমার নেই কোনো গন্তব্য স্থান  তাই ,
রাস্তায় ঘুরে ঘুরে হয়ে গেলাম আমি আজ রাস্তার মেয়ে।
             তবে এখানেই শেষ নয়,
রাস্তার মানুষ দিয়ে দিল আজ আমার নতুন নাম,
         ধর্ষিতা থেকে আজ আমায় বলে দিল পতিতা।
আহা পেটের দায়ে হয়ে গেলাম আজ আমি পতিতা।
ওহে বিশ্ব-জগৎকুল, আর তবে কেবা নাম দিবি বলে দে,
          আজ আমায় বলে দে।
সংসার জগৎকুল আমায় হয়ত আর চাইবে না ,
          আমার প্রতি অবিচার  হওয়ার কারনে
বিচার চাইতে গেলাম মস্ত বড় এক সাহেবের কাছে,
  তবে তিনি ও উপহাস করিয়া কহিলেন
                 "এক সময়" সাপেক্ষে কত নিবি বল।
নিজেকে নিজেই ধিক্কার দিয়ে বেঁচে ফিরলাম,
                      অজানা অন্য কোনো গন্তব্যে।
ওরে ''বলাৎকারী'' একালে বেচে গেলি তুই,
  পরবাসের শাস্তির জন্য অপেক্ষার প্রহর গুনতে থাকিস।।