কবিতা:- দুর্গা হয়ে ওঠ রে নারী
✍️ মনোজ ভৌমিক


ও নারী তুই কলো চেহারায় ঢাকিস কেন তোকে?
ধর্ষকরা কি ধর্ষণ ভুলবে তোর অন্ধ চেহারা দেখে?
খেত খামারে অলিতে গলিতে ওরা ছদ্মবেশী হায়না!
কোন রূপেতে থাকে কোথায় সহজে বোঝা যায় না।


নরম মাংস খুবলে খাওয়ার করেছে ওরা পণ,
আবাল বৃদ্ধা বনিতা দেহে রুচি যে সর্বক্ষণ।
শাসক সদাই মন্ত্র কথায় মুখ ধোয় দিনে রাতে,
তোর চেহারা সাদা কালোয় কি ফারাক বল তাতে!


ও নারী তুই করিস কেন আজও নীরব প্রতিবাদ!
নে তুলে নে অস্ত্র হাতে, আইন বালাই ষাট।
এখন তোদের জাগতে হবে নিয়ে বাহুতে অসীম বল,
নিজের সাথে নিজেই তোরা করিস না আর ছল।


দ্রৌপদী থেকে মনীষা আসিফায় ভাবনা আজও একই,
পুরুষ নামের ঐ ধ্বজাটাকে এবার নুইয়ে দে তো দেখি।
বুঝবে তবেই ধর্ষণ আর কর্ষণে আধিপত্যের ফল,
দুর্গা হয়ে ওঠ রে নারী ভুলে সকল রকম ছল।