================


আমার হাত দুটি খালী,
অনেক দিন ধরেই খালী।
খালী হাত দেখতে দেখতে
মনেই পড়ে না এখন  
এই হাত, কোনো একদিন
প্লাকার্ডে, স্লোগানে, রক্তে, দ্রোহের আগুনে
নিঃসংকোচে মিটিয়েছিলো আজন্ম ঋণ।
মনেই পড়ে না
মুষ্টিবদ্ধ এই হাত ছিলো
অবিরাম এক প্রতিবাদী কণ্ঠ।
এই হাত ছিলো
দোর্দণ্ড প্রতাপ রক্ত চক্ষুর লুকানো আতঙ্ক।
এই হাত, মুক্ত আকাশে মুক্তির বারতা
অতন্দ্র প্রহরীর চোখে মুক্ত পতাকা।


মুক্ত সবল সেই হাত দুটি এখন
জীর্ণ, শীর্ণ, জরাগ্রস্থ, শিকলে বাঁধা
হাত জুড়ে দগদগে ঘা
শক্তিহীন, অথর্ব, নিশ্চুপ।
ক্ষুধার্ত শকুনের তীক্ষ্ণ আছড়ে লন্ডভন্ড মানচিত্র
শুধু নির্লিপ্ত চেয়ে থাকা।
আর  অপেক্ষা...
কবে আবার পড়বে মনে
সবল সে হাত শিকল ভেঙে,
গর্জে উঠবে প্রচণ্ড আক্রোশে,
ভেঙে চুরে, কেটে, ভাসিয়ে
শোধ নেবে একে একে
প্রতি ফোঁটা  অশ্রুর
প্রতি ফোঁটা রক্তের


মনে পড়বে কোনো একদিন
নিশ্চিন্ত, মনে পড়বে।
============== ==============